Headlines
Loading...
পূর্ব বর্ধমান জেলায় বুধবার করোনার ডবল সেঞ্চুরি, উদ্বেগ বাড়ছে

পূর্ব বর্ধমান জেলায় বুধবার করোনার ডবল সেঞ্চুরি, উদ্বেগ বাড়ছে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: মঙ্গলবার সেঞ্চুরি থেকে এক রান কম করে পূর্ব বর্ধমান নট আউট ছিল করোনা। আর বুধবার এক্কেবারে ডবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে রীতিমত তোলপাড় করে দিল। এদিন জেলায় করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন মোট ২২১জন। আর শুধু বর্ধমান পুর এলাকায় সংক্রমিতের সংখ্যা ৮৬। এদিন জেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পূর্ব বর্ধমান জেলায় এখনও পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত মোট রোগীর সংখ্যা ৫০৩জন। 

স্বাভাবিকভাবেই এই জেলাতেও করোনা পরিস্থিতি দিন দিন রীতিমত উদ্বেগ তৈরি করতে শুরু করেছে বলেই মনে করছেন জেলার স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ। যদিও বাড়তে থাকা পরিস্থিতিতেও এদিনও বর্ধমান শহর সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে মাস্ক ছাড়াই আম জনতাকে বাজার হাটে ঘুরতে দেখা গেছে। জেলার সদর শহর বর্ধমান সহ প্রায় সব থানার উদ্যোগে পথ চলতি সাধারণ মানুষকে প্রতিদিন সচেতন করতে পথে নেমে কাজ করছে পুলিশ আধিকারিক সহ কর্মীরা। গত তিনদিনে বর্ধমান সহ জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় শতাধিক সাধারণ মানুষ করোনা বিধি অন্যান্য করায় গ্রেপ্তার হয়েছেন। তবু বেপরোয়া জনগণ। 

উল্লেখ্য, পুলিশ সূত্রে জানা গেছে বুধবার বর্ধমান থানা এলাকায় মাস্ক না পড়ে রাস্তায় বেরোনোর কারণে পুলিশ প্রায় ৩৫জনকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্যান্য থানা এলাকাতেও নিয়মভঙ্গকারী প্রচুর সাধারণ মানুষকে পুলিশ আটক করেছে করোনা বিধি মেনে না চলার কারণে। পাশাপাশি, জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বর্ধমান শহরে কোভিড আক্রান্তদের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মেমারি এলাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রচার চালানো হয়। 
প্রশাসনের তরফ থেকে বারবার প্রচার করা সত্বেও বেলাগাম সংক্রমণ ঠেকাতে সাধারণ মানুষ কতটা সহযোগিতা করে সেটাই এখন বড় প্রশ্ন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন বর্ধমান শহরে ২০ জন কোভিড আক্রান্তদের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেয় বর্ধমান থানার পুলিশ। এছাড়া বর্ধমান ১ব্লকে কোভিড আক্রান্ত ১০ জনের বাড়িতেও খাদ্য শস্য পৌঁছে দেওয়া হয় পুলিশের পক্ষ থেকে। প্রতিটি বাড়িতে প্যাকেটে করে চাল, ডাল ও অন্যান্য শুকনো খাবার দেওয়া হয়।

0 Comments: