Headlines
Loading...
গত দশ দিনের রেকর্ড ভেঙে রবিবার পূর্ব বর্ধমানে করোনায় আক্রান্ত ৬২৪জন, বর্ধমান শহরেই ২০২জন সংক্রমিত

গত দশ দিনের রেকর্ড ভেঙে রবিবার পূর্ব বর্ধমানে করোনায় আক্রান্ত ৬২৪জন, বর্ধমান শহরেই ২০২জন সংক্রমিত


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমানে প্রতিদিনই করোনা সংক্রমণের সংখ্যা রেকর্ড ভাঙছে। করোনার দ্রুত গতিতে বেড়ে চলা,অন্যদিকে করোনার ঢেউকে আটকাতে প্রশাসনিক তৎপরতার মধ্যেই খোদ বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একাধিক চিকিৎসক ও নার্স করোনা আক্রান্ত হলেন। জেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী রবিবার বর্ধমান জেলায় মোট ৬২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে বর্ধমান পুরসভাতেই আক্রান্ত হয়েছেন ২০২ জন। যা রীতিমতো উদ্বেগ বাড়িয়েছে। 


এরমধ্যে ৬২৪ জন হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। ১জন কোভিড হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।  তবে এখনও পর্যন্ত সুস্থতার হারের ক্ষেত্রে জেলায় পরিস্থিতি ভালো রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সুস্থতার হার প্রায় ৯৩ শতাংশ। জেলায় শেষ ২৪ ঘন্টায় কোনও মৃত্যুর খবর নেই বলেও জানা গিয়েছে। এদিকে শনিবার থেকেই জেলা জুড়ে করোনার শিকল ভাঙতে একাধিক নির্দেশিকা জারী করেছে জেলা প্রশাসন। রবিবার জেলার বিভিন্ন প্রান্তের বাজার সহ জনবহুল এলাকা পরিদর্শন করলেন প্রশাসনিক কর্তারা সহ জনপ্রতিনিধিরা। বিতরণ করা হল মাস্কও। মাস্ক বিহীন জনগণকে সতর্কও করলেন তাঁরা।


এদিন বর্ধমান ২ নং ব্লকের বড়শুল বাজারে বিধায়ক নিশীথ মালিক সহ ব্লক প্রশাসনিক কর্তারা এবং শক্তিগড় থানার পুলিশ বড়শুল হাট পরিদর্শন করেন। মাস্ক না পড়ে বাজারে আসায় ২৬ জনকে আটকও করা হয়। একইসঙ্গে বিতরণ করা হয় মাস্কও। অন্যদিকে রবিবার ছিল জামালপুরে গরুর হাট। এদিন জামালপুর ব্লকের আধিকারিকরা এই গরুর হাট পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। অপরদিকে, পুর্ব ঘোষণা মত রবিবার বর্ধমান শহরে সমস্ত দোকানপাট বন্ধ ছিল। পথে যাঁরা বেড়িয়েছেন, প্রত্যেকেই মাস্ক পড়ায় জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তারা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। 


এরই পাশাপাশি করোনার থাবায় খোদ বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক, নার্স আক্রান্ত হওয়ায় আতংক আরো বেড়েছে। প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ৩০ জন চিকিৎসক ও ৩৫ জন নার্স করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ৭ জন চিকিৎসক ও ১০ জন নার্স আক্রান্ত হয়েছেন। নিউরোলজি বিভাগ ও গাইনি বিভাগেও বেশ কয়েকজন করে চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।


0 Comments: