Headlines
Loading...
বর্ধমানে ৪৭তম জুনিয়র ন্যাশনাল ভলিবলে খেলোয়াড়দের চোট আঘাতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে

বর্ধমানে ৪৭তম জুনিয়র ন্যাশনাল ভলিবলে খেলোয়াড়দের চোট আঘাতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: শনিবার থেকে বর্ধমানের অরবিন্দ স্টেডিয়াম এবং শহরের অগ্রদূত মাঠে শুরু হয়েছে ৪৭তম জুনিয়র ন্যাশনাল ভলিবল প্রতিযোগিতা। আর প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় দিন থেকেই বিভিন্ন রাজ্যের খেলোয়াড়দের চোট আঘাতের ঘটনা বাড়তে শুরু করায় একদিকে যেমন চিন্তা বাড়ছে সংশ্লিষ্ট দলের কর্মকর্তাদের, পাশাপাশি আয়োজকরাও এই নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন। রবিবার অগ্রদূত মাঠে খেলা চলার সময় পড়ে গিয়ে ছত্রিশগড়ের এক মহিলা খেলোয়াড় গুরুতর চোট পেয়েছেন। তাঁর পায়ের সিনবোর্ন ভেঙে যাওয়ায় তাঁকে বর্ধমানের একটি বেসরকারী নার্সিংহোমে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। 


খেলা পরিচালন কমিটির অন্যতম সদস্য উজ্জ্বল প্রামাণিক জানিয়েছেন, তাঁরা খবর পেয়েই দ্রুততার সঙ্গে ওই খেলোয়াড়কে ভর্তি করেছেন একটি বেসরকারী নার্সিংহোমে। সোমবারই তাঁর পায়ের অস্ত্রোপচার করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, এজন্য খরচ পড়বে প্রায় লক্ষাধিক টাকা। ইতিমধ্যেই এই ছাত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে তাঁর সবরকমের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 


এরই পাশাপাশি খেলার তৃতীয় দিনে আরও ৪জন খেলোয়াড় আহত হয়েছেন। খেলার উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত কমবেশি প্রায় ১০জন খেলোয়াড় আঘাত পেয়েছেন। অনেকেই জানিয়েছেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে খেলার মাঠের সঙ্গে যুক্ত না থাকার কারণে খেলোয়াড়দের শারীরিক সক্ষমতা অনেকটাই কম হয়ে পড়েছে যা আঘাত পাবার একটা কারণ। 


এদিকে, সোমবার বিকাল পর্যন্ত পাওয়া খবরে জানা গেছে, এদিন মেয়েদের বিভাগে তামিলনাড়ু সাইয়ের বিরুদ্ধে জয়ী হয়েছে। হরিয়ানা ওড়িষ্যার বিরুদ্ধে, তেলেঙ্গানা মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে, গুজরাট পণ্ডিচেরীর বিরুদ্ধে, কেরালা আসামের বিরুদ্ধে এবং মধ্যপ্রদেশ জম্মু ও কাশ্মীরের বিরুদ্ধে জয়ী হয়েছে। অন্যদিকে, ছেলেদের বিভাগে উত্তরাঞ্চল হারিয়েছে বাংলাকে, ছত্রিশগড় উড়িষ্যাকে, কেরালা চণ্ডীগড়কে, রাজস্থান তেলেঙ্গানাকে এবং গুজরাট পণ্ডিচেরীকে হারিয়েছে।


0 Comments: