Headlines
Loading...
সরকার দাম কমালেও, বর্ধমানে পুরোনো দামেই বিক্রি হচ্ছে মদ, ব্যাপক হৈ চৈ, উদাসীন আবগারি দপ্তর

সরকার দাম কমালেও, বর্ধমানে পুরোনো দামেই বিক্রি হচ্ছে মদ, ব্যাপক হৈ চৈ, উদাসীন আবগারি দপ্তর


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: দীর্ঘ কয়েকমাস পর রাজ্য সরকার বর্ধিত মদের দাম কমিয়ে দেওয়ার ঘোষণা করায় সুরপ্রেমীদের মধ্যে খুশির আমেজ তৈরি হয়েছিল। রাজ্য সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী ১৬নভেম্বর থেকে রাজ্য জুড়ে বিলেতি মদের দাম কমে নতুন দামে বিক্রি করার নির্দেশিকা সমস্ত জেলা প্রশাসনকে পাঠিয়েও দেওয়া হয়। কিন্তু সরকারের বিজ্ঞপ্তি জারির ২৪ ঘন্টা কেটে গেলেও পূর্ব বর্ধমানের খোদ বর্ধমান শহরের বেশীরভাগ মদের দোকান এবং বার গুলিতে সেই পুরোনো দামেই মদ বিক্রি হচ্ছে বলে বুধবার সন্ধ্যে থেকেই একের পর এক অভিযোগে ব্যাপক হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়।


বর্ধমান শহরের তিনকোনিয়া এলাকার একটি মদের দোকানে পুরোনো দামেই মদ বিক্রি করার অভিযোগে বুধবার রাতে ব্যাপক গন্ডগোল সৃষ্টি হয়। ওই বার কর্তৃপক্ষ তড়িঘড়ি মদ বিক্রি বন্ধ করে দোকানের সাটার নামিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। কিন্তু শহরের প্রায় বেশিরভাগ বার ও অফ লাইন মদের কাউন্টারে এদিন নতুন কার্যকর হওয়া দাম নেওয়া তো দূর অস্ত, অনেকেরই সাফ বক্তব্যই ছিল, বেশি দামে কেনা মদ কিভাবে কম দামে বিক্রি করা সম্ভব! যদিও ফোকাস বেঙ্গলের পক্ষ থেকে সেই সমস্ত মদের দোকানের কর্তৃপক্ষকে বেশি দামে মদ বিক্রি করার কারণ জানতে চাইলে, তারা পরিষ্কার করে জানিয়ে দেন, যে তাঁরা এখনো নতুন প্রিন্টের মদ মজুদ করতে পারেননি। তাই পুরোনো স্টক ক্লিয়ার করছেন। দু একদিনের মধ্যেই ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ব্রেভারেজ করপোরেশন নতুন দামের মদ সাপ্লাই করতে শুরু করলেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে। যদিও মদ কিনতে আসা গ্রাহকরা এই যুক্তি মানতে চাইছেন না। আর ফলে বুধবার শহরের বেশ কয়েকটি মদের দোকানে এবং বারে মালিক পক্ষের সঙ্গে গ্রাহকদের তর্কাতর্কির ঘটনাও ঘটে যায়।


শহরের একটি মদের দোকানের মালিক পরিষ্কার জানিয়েছেন, বেশি দামে কেনা মজুদ মদ তারা কম দামে বিক্রি করবেন না। যদিও মদের দাম কম থাকা কালীন যে সময় দাম বেড়েছিল, সেই সময় এই দোকানিরাই রাতারাতি কম দামে মজুদ মদ বর্ধিত দামে বিক্রি করতে শুরু করেছিল বলে এদিন গ্রাহকরা অভিযোগ করেছেন। তারা অভিযোগ করেছেন, তাহলে এখন রাজ্য সরকার মদের দাম কমিয়ে দেওয়ার পরও কিভাবে আগের দামেই বাজারে মদ বিক্রি হচ্ছে। প্রশ্ন উঠেছে, জেলা আবগারি দপ্তরই বা কেন এই সমস্ত মদ কারবারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না। এমনকি পুরোনো দামে মদ কি আদৌ বিক্রি করা যেতে পারে, এই প্রশ্নের উত্তরেও শহরের কোনো দোকানদার নিশ্চিত করে কিছুই বলতে পারেননি। পাশপাশি পূর্ব বর্ধমান আবগারি দপ্তরের এক আধিকারিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তিনিও এদিন বিষয়টি পরে জানাবেন বলে এড়িয়ে যান। সার্বিকভাবে মঙ্গলবার থেকে রাজ্যে বিলিতি মদের দাম কমে গেলেও বুধবারেও সেই কম দামের মদ বাজারে কিনতে না পারায় বর্ধমান শহরে সুরাপ্রেমীদের মধ্যে হতাশার পাশাপাশি ক্ষোভের সৃষ্টি হতে শুরু করেছে।


এক নজরে দেখে নেওয়া যাক নতুন দামের তালিকা:-

অফিসার্স চয়েস অরিজিনাল ট্রিপল এক্স রাম: ১২০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৪০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৪৭০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

অফিসার্স চয়েস ডিলাক্স: ১৩০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৫০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫০০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ম্যাকডোয়েলস নম্বর ওয়ান সেলিব্রেশন ম্যাচিরওড ট্রিপল এক্স রাম: ১৪০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৮০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫৪০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ওল্ড মঙ্ক ম্যাচিরওড ট্রিপল এক্স প্রিমিয়াম রাম ভেরি ওল্ড ভেটেড: ১৪০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৮০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫৪০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ওল্ড মঙ্ক ট্রিপল এক্স প্রিমিয়াম রাম: ১৪০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৮০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৭৫০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ডিএসপি ব্ল্যাক ডিলাক্স: ১৫০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ২৯০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫৬০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।


সিগ্রামস ইম্পেরিয়াল ব্লু ক্লাসিক গ্রেন: ১৬০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩০০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫৯০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ম্যাকডােয়েলস নম্বর ওয়ান সুপিরিয়র: ১৬০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩০০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৫৯০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ম্যাকডােয়েলস নম্বর ওয়ান প্রিমিয়াম: ১৭০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৩০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৬২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ম্যাজিক মােমেন্টস পিওর গ্রেন: ১৭০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৩০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৬২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

হোয়াইট মিসচিফ আলট্রা পিওর: ১৭০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৩০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৬২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ওল্ড মঙ্ক গোল্ড রিজার্ভ সিলেক্ট রাম: ১৮০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৫০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৬৭০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ওল্ড মঙ্ক হোয়াইট প্রিমিয়াম রাম: ১৮০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৫০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৬৭০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

সিগ্রামস রয়্যাল স্ট্যাগ ব্লেন্ডেড: ২০০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৭০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৭১০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।


এইচ পিএম প্রিমিয়াম ব্ল্যাক: ২১০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৩৮০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৭২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

বার্কাডি কার্টা ব্লাঙ্কা সুপিরিয়ার হোয়াইট রাম: ২৪০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৪৪০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৮৪০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

স্মার্নফ ট্রিপল ডিস্টিলড: ২৪০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৪৩০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৮২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

ব্লেন্ডারস প্রাইড সিলেক্ট প্রিমিয়াম: ২৭০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৪৯০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ৯২০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

সিগ্রামস ব্লেন্ডারস প্রাইড রিজার্ভ: ৩২০ টাকা (১৮০ মিলিলিটার), ৫৯০ টাকা (৩৭৫ মিলিলিটার), ১,১১০ টাকা (৭৫০ মিলিলিটার)।

বিয়ার:-
বাডওয়েইজার ম্যাগনাম (৬৫০ মিলিলিটার): ১৪৫ টাকা।
কার্লসবার্গ স্মুথ প্রিমিয়াম (৬৫০ মিলিলিটার): ১২০টাকা।
ফস্টার্স (৬৫০ মিলিলিটার): ১০৫ টাকা।
হেওয়ার্ডস ৫০০০ (৬৫০ মিলিলিটার): ১২০ টাকা।
হাইনিকেন (৬৫০ মিলিলিটার): ২২০ টাকা।
কিংফিশার স্ট্রং প্রিমিয়াম (৬৫০ মিলিলিটার): ১২০টাকা।
টিউবর্গ ক্লাসিক (৬৫০ মিলিলিটার): ১৩৫ টাকা।

0 Comments: