Headlines
Loading...
বর্ধমান শহরের কলেজ মোড় থেকে হাসপাতাল যাওয়ার রাস্তার হাল বেহাল, ক্ষোভ বাড়ছে

বর্ধমান শহরের কলেজ মোড় থেকে হাসপাতাল যাওয়ার রাস্তার হাল বেহাল, ক্ষোভ বাড়ছে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: প্রতিশ্রুতি দিয়েও বর্ধমান পুরসভার পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষ তথা পুরবাসীদের জন্য শ্বেতপত্র বা নাগরিক সনদ প্রকাশ করার পর কয়েকমাস কেটে গেছে। কিন্তু এখনও বর্ধমান পুর এলাকার বিশেষত ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের মধ্যে দিয়ে যাওয়া জিটিরোড থেকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পর্যন্ত বেহাল রাস্তার হাল এখনও ফেরেনি। আর এর ফলে ক্রমশই সাধারণ মানুষের ক্ষোভ বাড়তে শুরু করেছে। 


এই দুই ওয়ার্ডের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বর্ধমান শহরের অন্যান্য লিংক রোডগুলির মধ্যে অত‌্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জিটিরোডের লক্ষ্মীপুর মাঠ কলেজ মোড় থেকে বর্ধমান রাজ কলেজ এবং বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পর্যন্ত এই রাস্তাটি। কিন্তু দীর্ঘকাল ধরেই এই রাস্তাটি খারাপ। বর্তমানে রাস্তার অবস্থা এতটাই বেহাল যে চলাচল করাই দায় হয়ে উঠেছে। অথচ বর্ধমান হাসপাতালে দ্রুত যাবার জন্য এই রাস্তাকেই অনেকে ব্যবহার করেন। 


বর্ধমান শহরের নিত্য যন্ত্রণা টোটোর দাপট এই রাস্তাতেও বহাল। দিনে রাতে প্রায় সবসময়ই এই রাস্তা থাকে ব্যস্ততম। অথচ রাস্তায় সিংহভাগ জুড়েই নেই কোন আলোর ব্যবস্থা। এরমধ্যে কিছুদিন আগেই টানা বর্ষায় এই রাস্তার ছাল চামড়া উঠে গিয়ে বিভিষিকায় পরিণত হয়েছে। এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, গলসী, আউশগ্রাম,গুসকরা এমনকি বীরভূমের দিক থেকে আসা ও বর্ধমান শহরের আশপাশের এলাকা থেকে দ্রুত রোগীকে নিয়ে হাসপাতাল পৌঁছাতে এই লিংক রোডকেই ব্যবহার করেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু রাস্তার বেহাল অবস্থায় রোগী নিয়ে এই রাস্তা দিয়ে যাওয়া আরও মারাত্মক হয়ে উঠেছে। 


এরইমাঝে মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে স্কুল কলেজ। ফলে যানজট আরও বেড়েছে। এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এই রাস্তায় যানজটের অন্যতম কারণ হল বেহাল রাস্তা। এব্যাপারে বর্ধমান পুরসভার প্রশাসক প্রণব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ওই রাস্তাটি দ্রুত মেরামত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাস্তার টেণ্ডার করা হয়েছে। তাঁরা আশা করছেন ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই রাস্তার কাজ শুরু করা যাবে।


0 Comments: