Headlines
Loading...
এক বছর অপেক্ষা শেষে সরস্বতী গৃহপ্রবেশ করল, খুশির হওয়া পরিবারে

এক বছর অপেক্ষা শেষে সরস্বতী গৃহপ্রবেশ করল, খুশির হওয়া পরিবারে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: একটা বছর অপেক্ষার পর অবশেষে সরস্বতী শনিবার নিজের ঘরে প্রবেশ করল। অনেক দিনের সাধ মিটলো তাঁর। পরিবারের সকলের মুখে হাসি ফুটতে দেখে সরস্বতীও বেজায় খুশি। শনিবার ছিল আবাস দিবস। আর এই দিনটিতেই সে তার নতুন বাড়িতে প্রবেশ করলো।

মেমারির নি:শঙ্ক গ্রামের সরস্বতী ভট্টাচার্য গত আর্থিক বর্ষে বাংলার আভাস যোজনাতে একটি ঘর পেয়েছিলেন। এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা, সঙ্গে একশো দিনের কিছু টাকাও পেয়েছিলেন। আর নিজের কিছু সঞ্চয় দিয়ে একটি ছোট্ট বাড়ি সে তৈরি করেছে। একমাত্র সন্তান আর পুত্রবধুকে নিয়ে তাঁর ছোট্ট পরিবার। সেই পরিবারের আজ খুশির দিন। আবাস দিবসে সকাল থেকে নিজের বাড়িটিকে সবাই মিলে মনের মতো করে সাজিয়ে তোলেন। কলা গাছ,কলসি, বেলুন দিয়ে সাজানো হয় নতুন বাড়িকে। পরে নিজেরাই একটি ফিতে কেটে গৃহে প্রবেশ করেন সকলে।

আজ সারা জেলা জুড়ে আবাস দিবস পালিত হলো। তারই অঙ্গ হিসাবে মেমারি-১ পঞ্চায়েত সমিতির বিভিন্ন গ্রামেও দিনটি পালিত হয়। সভাপতি বসন্ত রুইদাস বলেন, আমরা দিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করেছি। প্রতিটি গ্রামে যাদের বাড়ি এখনো সম্পূর্ণ হয়নি তাদের বাড়িতে যাওয়া হয়। তাড়াতাড়ি অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে বলা হয়েছে তাঁদের। মেমারি-১ ব্লকের যুগ্ম বিডিও অংশুমান ঘোষ জানান, তাঁরা এই দিন দশটা পঞ্চায়েতে ছয়টি বাড়িতে গৃহ প্রবেশ অনুষ্ঠান করেছেন। পাশপাশি কয়েক জায়গায় ভিত পুজোও করা হয়।

0 Comments: