Headlines
Loading...
রহস্যময় বিশাল সাদা ফেনা কে ঘিরে তীব্র আলোড়ন বর্ধমানে

রহস্যময় বিশাল সাদা ফেনা কে ঘিরে তীব্র আলোড়ন বর্ধমানে



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বুধবার বিকেল থেকেই এলাকার মানুষের কৌতূহল বাড়ছিল। ধীরে ধীরে বাড়ছিল কৌতূহলী মানুষের ভিড়ও। শেষমেষ সন্ধ্যা গড়াতেই দুর্গাপুর থেকে বর্ধমানমুখী ২নম্বর জাতীয় সড়কের কুরমুন চন্দনপুর এলাকা কার্যত প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ঘটনার সূত্রপাত এদিন বিকেল তিনটে নাগাদ। হঠাৎই স্থানীয় কিছু মানুষ লক্ষ্য করেন জাতীয় সড়কের ধারে জঙ্গলের মধ্যে সাদা রঙের কিছু রয়েছে। তাঁরাই সামনে থেকে দেখে বুঝতে পারেন একটি গাছের গুঁড়ির নিচ থেকে অদ্ভুত একটা ফেনা বের হচ্ছে। ফেনার রং সাদা।


 প্রাথমিকভাবে তাঁরা মনে করেন কোনোভাবে কেউ এইস্থানে সার্ফ বা সাবান জাতীয় কিছু ফেলে দেওয়ায় তা থেকেই ফেনা তৈরি হয়েছে। কিন্তু কিছুক্ষনের মধ্যেই তাঁরা তাঁদের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। এ কি কান্ড ঘটছে! ফেনা নির্গমনের পরিমান উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে। ঘন্টা খানেকের মধ্যেই ফেনার উচ্চতা হয়ে যায় প্রায় ১৫ফুট। আর এরপরই রীতিমত আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। কাতারে কাতারে মানুষ ভিড় করতে শুরু করেন জাতীয় সড়কের উপর। এরই মধ্যে দিনের আলো কমে আসে। খবর দেওয়া হয় বর্ধমান থানায়। স্থানীয় পঞ্চায়েত অফিসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গেলেও ফেনা কাণ্ডের কোনো হদিস খুঁজে পায়নি। বরং বিপজ্জনক জাতীয় সড়কের ধার থেকে মানুষকে যাতে সরিয়ে নেওয়া যায় তার বন্দোবস্ত করতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে।


এদিকে অন্ধকার জঙ্গলের মধ্যে ফেনার পরিমান হু হু করে বাড়তে থাকে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ফেনা একতলা বাড়ির সমান উচ্চতা তৈরি করেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। সকলের মুখেই একটাই প্রশ্ন, এই অদ্ভুত ফেনার উৎস কি। কিভাবে টানা পাঁচ ঘণ্টা ধরে কোথা থেকে ফেনা বেরিয়ে আসছে। রাত পর্যন্ত এইসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজে না পেয়ে মেটাল ডিভিসি সংলগ্ন কুরমুন চন্দনপুর এলাকার মানুষ একপ্রকার আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।


স্থানীয় বাসিন্দা শেখ আনন্দ জানিয়েছেন, এমন অদ্ভুত ঘটনা এই এলাকায় এর আগে কোনোদিন ঘটেনি। কি হচ্ছে, কেন হচ্ছে তাও তাঁরা বুঝতে পারছেন না। তিনি জানিয়েছেন, ফেনা থেকে কোনো গন্ধ বেরোচ্ছে না, তবে কিছুটা চিটচিটে। প্রশাসনকে খবর দেওয়া হয়েছে, এখন তারাই গোটা ঘটনার তদন্ত করে দ্রুত সমাধান করুন এটাই সকলে চাইছেন।

0 Comments: