Headlines
Loading...
বর্ধমানে ভোজ্য তেলের গুদামে হানা, বাজেয়াপ্ত ১২৭টি তেলের টিন

বর্ধমানে ভোজ্য তেলের গুদামে হানা, বাজেয়াপ্ত ১২৭টি তেলের টিন


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বসতবাড়ি লাগোয়া ভোজ্যতেলের কারখানা। আর সেইখানেই তেলের সাথে নাকি ভেজাল মেশানো হচ্ছিল। মঙ্গলবার গোপন সূত্রে খবর পেয়ে জেলা এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ এবং বর্ধমান থানার পুলিশ অভিযান চালালো বর্ধমানের ২৬নং ওয়ার্ডের লাকুরড্ডী এলাকার দুর্লভা কালীবাড়ি সংলগ্ন একটি তেল কারখানায়। প্রায় ১২৭টি তেলের টিন সহ অন্যান্য কিছু সরঞ্জাম বাজেয়াপ্ত করেছে অভিযানকারী দলের অফিসারেরা। 


অভিযোগ সরষের তেলের সাথে ভেজাল উপকরণ মিশিয়ে টিনে ভরে সিল করার পর বাজারজাত করা হচ্ছিল এই কারখানা থেকে। এনফোর্সমেণ্ট ব্রাঞ্চ সূত্রে জানা গেছে, এদিন গুদামের মালিক বাড়িতে ছিলেন না। অন্যকেউও ফুড লাইসেন্স সহ কোনোরকম বৈধ কাগজপত্রই দেখাতে পারেননি অভিযানকারী টিমের কাছে। জানা গেছে, বাজেয়াপ্ত তেলের নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে ল্যাবরেটরি তে। সেখান থেকে রিপোর্ট আসার পরই পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন তাঁরা। যদিও এই ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি বলে জানিয়েছেন ফুড সেফটি বিভাগের আধিকারিকেরা।


অন্যদিকে এদিন এই তেল কারখানার মালিক বাড়িতে ছিলেন না। পরিবারের এক মহিলা সদস্য জানিয়েছেন, বেশকিছুদিন যাবৎ এই তেল কারখানার উৎপাদন বন্ধ আছে। অন্য কোম্পানির ভোজ্য তেল নিয়ে এসে সরবরাহ করা হচ্ছিল। তাদের সমস্ত বৈধ কাগজপত্র রয়েছে। কিন্তু মালিক না থাকায় সেই সমস্ত কাগজপত্র দেখানো যায়নি। তবে ওই সদস্য স্বীকার করেছেন, জমি সংক্রান্ত কিছু কাজ সরকারি অফিসে আটকে থাকায় ভোজ্য তেল বিক্রির জন্য নির্দিষ্ট লাইসেন্স পেতে দেরি হচ্ছে। তবে তিনি এও জানিয়েছেন, অভিযানে আসা আধিকারিকদের সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করা হয়েছে।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});