728x90 AdSpace

Latest News

Wednesday, 14 July 2021

গলসির পারাজে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, জখম চার মহিলা সহ দুপক্ষের আটজন, উত্তেজনা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,গলসি: গ্রামে বসার বাঁশের মাচা ভেঙে দেওয়া কে কেন্দ্র করে তৃণমূলের দু পক্ষের সংঘর্ষে তুমুল উত্তেজনা তৈরি হল গলসি থানার পারাজ পঞ্চায়েতের করকডাল গ্রামে। সংঘর্ষের ঘটনায় চারজন মহিলা সহ মোট আটজন আহত হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। আহতদের সকলকে রক্তাক্ত অবস্থায় পুরসা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, করকডাল গ্রামে বাঁশের তৈরি একটি মাচা কে ভেঙে দেওয়া কেন্দ্র করে গতকাল থেকেই ব্লক সভাপতি জনার্দ্দন চ্যাটার্জ্জীর গোষ্ঠীর লোকজনের সাথে জেলা সংখ্যালঘু সেলের সহ সভাপতি মহম্মদ মোল্লা গোষ্ঠীর লোকজনের চাপা উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। এরপর বুধবার বিকেল থেকে দুপক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ শুরু হয়। মারামারিতে জখম হয়েছে জনার্দ্দন গোষ্ঠীর ছয়জন। তাদের মধ্যে চারজন মহিলা। পাশপাশি মহম্মদ মোল্লার গোষ্ঠীর দুইজনও এই ঘটনায় জখম হয়েছেন।

জনার্দ্দন চ্যাটার্জ্জীর অনুগামী সেখ মন্টু ও তার পরিবারের লোকদের দাবী, গত কাল তাদের বাঁশের তৈরী বসার মাচাটি ভেঁঙে দেয় মহম্মদ মোল্লার লোকজন। যারা এই কাজের সঙ্গে যুক্ত তাদের বাড়ি করকডাল, ভিমসারা, বোলপুর ও রানাডি গ্রামে। অভিযোগ এরাই আজ ফের বিকালে শেখ মন্টুর বাড়ির পাঁচিল টপকে ভিতরে ঢুকে বাড়ির মহিলা ও আত্মীয়দের বাঁশ দিয়ে মারধর করে। মারধরের ঘটনায় দুইজন পুরুষ এবং চারজন মহিলা গুরুতর জখম হয়। 

অন্যদিকে মহম্মদ মোল্লার অনুগামী রাফিজুল মল্লিক অভিযোগ করেছেন, পারিবারিক বিবাদের জেরে এই মারামারি। কয়েকদিন ধরেই মন্টুদের বাড়ির লোকরা তাদের পরিবারের নামে কটুক্তি করছিলো। সেই রাগ থেকেই প্রথমে দুটি পরিবারের মধ্যে বাক বিতণ্ডা হয়। তারপরই আজ মন্টুর বাড়ির লোকেরা তাদের উপর চড়াও হয়ে মারধর করেছে। খবর পেয়ে গলসি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে গ্রামে পুলিশি টহল চলছে।
গলসির পারাজে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, জখম চার মহিলা সহ দুপক্ষের আটজন, উত্তেজনা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top