Headlines
Loading...
রাজ্যের ৫ জেলার বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং সেচ ব্যবস্থার উন্নতির জন্য ৪৩০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন

রাজ্যের ৫ জেলার বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং সেচ ব্যবস্থার উন্নতির জন্য ৪৩০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বিশ্বব্যাঙ্কের অর্থানুকূল্যে রাজ্যের ৫ জেলার বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং সেচ ব্যবস্থার উন্নতি নিয়ে মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হল। মঙ্গলবার এই বৈঠকে হাজির ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, জেলাশাসক প্রিয়াংকা সিংলা, জেলা প্রশাসনের সমস্ত আধিকারিকরা সহ ১৮টি ব্লকের গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানরা। জেলাশাসক প্রিয়াংকা সিংলা জানিয়েছেন, রাজ্যের ৫ জেলার বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং সেচ ব্যবস্থার উন্নতির জন্য বিশ্ব ব্যাঙ্ক, রাজ্য সরকার এবং এশিয়ান ইনফ্রাষ্টকচার ইনভেষ্টমেণ্ট ব্যাঙ্কের যৌথ অর্থানুকুল্যে মোট ৪৩০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদিত হয়েছে। এই টাকায় পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, হুগলী, হাওড়া এবং বাঁকুড়া জেলার বিশেষত দামোদরের জলে বন্যা নিয়ন্ত্রণ এবং দামোদরের জলকে সেচের কাজে ব্যবহার করা হবে। 

তিনি জানিয়েছেন, বিশেষ করে নিম্ন দামোদর এলাকায় প্রতিবছরই দামোদরের জলে প্লাবিত হবার ঘটনা ঘটে। আর তা রোধ করতেই এই অর্থে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে। একদিকে, বন্যা রোধে বাঁধ মেরামতি অন্যদিকে, দামোদরের বিভিন্ন শাখা ক্যানেলগুলির উন্নতি ঘটানো হচ্ছে। এই প্রকল্পে পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুর ব্লক এবং রায়না ২ ব্লক রয়েছে। যেহেতু দামোদরের জলে এই দুটি ব্লক বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ইতিমধ্যেই মুণ্ডেশ্বরী নদীতে কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক। 

তিনি জানিয়েছেন, এই দুটি ব্লকের সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানদের অনুকূলে একটি করে গ্রিভেন্স সেল গঠন করে দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের কাজ করতে গিয়ে কোনো অভিযোগ থাকলে তা ২০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, সেচের কাজ আগামী সেপ্টেম্বর অক্টোবর নাগাদ শুরু হতে চলেছে। যেহেতু এখন বৃষ্টি হচ্ছে। তাই বৃষ্টি থামলে এই কাজ শুরু হবে। এক্ষেত্রেও প্রতিটি পঞ্চায়েত এলাকায় একটি করে গ্রিভেন্স সেল গঠন করা হয়েছে।

0 Comments: