728x90 AdSpace

Latest News

Sunday, 16 May 2021

রাতের অন্ধকারে রেশনের মাল পাচারের দায়ে অভিযুক্ত রেশন ডিলার, আটক মাল, চাঞ্চল্য


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,মেমারী: রাতের অন্ধকারে রেশনের গম ও কেরোসিন পাচার করার অভিযোগে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ল বর্ধমানের মেমারী থানার বিজুর ২নং গ্রাম পঞ্চায়েতের বেনীগ্রামে। একদিকে যখন করোনার গ্রাফ ক্রমশই উর্ধমুখী, সাধারণ মানুষকে দুবেলা খাবার দিতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রেশন ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন নিয়ে আসতে চলেছেন, সেই সময় জনগণের প্রাপ্য রেশনের গম ও কেরোসিন রাতের অন্ধকারে পাচার করার দায়ে পুলিশের কাছে অভিযোগও দায়ের হল। এই ঘটনার পর পলাতক ওই রেশন ডিলার জয়দেব মুখার্জী। 

অভিযোগ, শনিবার সন্ধ্যা প্রায় সাতটা নাগাদ রেশনের এই মাল সরিয়ে ফেলছিলেন বিজুর ২নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বেনীগ্রামের রেশন ডিলার জয়দেব মুখার্জি (সপ নাম্বার – ২২, রেজিস্ট্রেশন নাম্বার ১৩৩৫০২৪০০০২৪)। বিষয়টি সন্দেহ হওয়ায় গ্রামের মানুষরাই হাতেনাতে ধরে ফেলেন তাঁকে। এই ঘটনায় গ্রামবাসীরা লিখিত অভিযোগ করেন মেমারি দু'নম্বর ব্লক ফুড ইন্সপেক্টর সুশান্ত সরকারের কাছে। ডিলারের লাইসেন্স বাতিল সহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবি জানান। জানা গেছে, পুলিশ ৩৫০ কেজি গম এবং প্রায় ২৩০ লিটার কেরোসিন তেল আটক করে। রাতেই ফুড ইন্সপেক্টরের নেতৃত্বে ওই ডিলারের গোডাউনকে সিল করে দেওয়া হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয় ডিলারের খাতাও। 

এদিকে, এদিন এই ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের প্রাক্তন খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ তথা বর্তমান কৃষি কর্মাধ্যক্ষ মহম্মদ ইসমাইল এবং বিজুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান বৃন্দাবন ঘোষ। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, এর আগেও ওই ডিলার রেশনের মাল সরিয়েছে। কিন্তু তাঁরা ধরতে পারেনি। শনিবার রাতে চুপিসারে মালপত্র সরানোর সময় গ্রামের মানুষের চোখে পড়ে যাওয়ায় হাতেনাতে ধরে ফেলা হয়। অপরদিকে, এদিন মহম্মদ ইসমাইল জানিয়েছেন, রেশনের মাল রাতের অন্ধকারে বিক্রি করতে যাচ্ছিলেন ওই রেশন ডিলার তথা বিজেপি নেতা জয়দেব মুখার্জ্জী। 

এদিন ইসমাইল জানিয়েছেন, ভোটের আগে বিজেপি নেতারা তৃণমূল নেতাদের চাল চোর বলে চিত্কার করছিল। এখন তারাই এসে দেখে যাক বিজেপি নেতা জয়দেব মুখার্জ্জীই রাতের অন্ধকারে রেশনের মাল বিক্রি করছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, ওই মাল সাতগেছিয়া বাজারে বিক্রি করার উদ্দেশ্য ছিল বলে তাঁরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন। এব্যাপারে আরও বিস্তারিত খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। তিনি জানিয়েছেন, পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। ওই ডিলারের কঠোরতম সাজা দেবার দাবী জানিয়েছেন তাঁরা। 

অন্যদিকে, ফুড ইন্সপেক্টর সুশান্ত সরকার জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার তদন্ত করে তিনি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। অপরদিকে, এই ঘটনা সম্পর্কে খোদ রেশন ডিলার জয়দেব মুখার্জ্জী জানিয়েছেন, তিনি সাধারণ মানুষের কাছ থেকে যাঁরা গম, আটা বা কেরোসিন বিক্রি করতে চাইতেন তিনি সেগুলি কিনতেন। এদিন তিনি স্বীকার করেছেন তাঁর ডিলারে বরাদ্দ মালের যেগুলি উদ্বৃত্ত হত সেগুলি তিনি বিক্রি করতেন।
রাতের অন্ধকারে রেশনের মাল পাচারের দায়ে অভিযুক্ত রেশন ডিলার, আটক মাল, চাঞ্চল্য
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top