Headlines
Loading...
রাত পোহালেই পূর্ব বর্ধমানের ৮ বিধানসভায় ভোট, নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে সমস্ত এলাকা

রাত পোহালেই পূর্ব বর্ধমানের ৮ বিধানসভায় ভোট, নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে সমস্ত এলাকা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: রাত পোহালেই পঞ্চম দফার ভোট গ্রহণ। রাজ্যের ৪৫টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ। উত্তরবঙ্গ, পূর্ব বর্ধমান, নদীয়া, এবং উত্তর ২৪ পরগনার একাংশে এই ভোট গ্রহণ সম্পাদিত হবে। পূর্ব বর্ধমান জেলার ষোলটি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে আটটি আসনে রয়েছে ভোট। এই আসনগুলি হল বর্ধমান উত্তর, বর্ধমান দক্ষিণ, রায়না, খণ্ডঘোষ, জামালপুর, মেমারি, মন্তেশ্বর ও কালনা বিধানসভা কেন্দ্র। এই আটটি কেন্দ্রে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ৪৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই ৮ টি কেন্দ্রের মোট ভোটার রয়েছেন ২০ লক্ষ ৯ হাজার ১৪৩ জন। 


এদিকে, শুক্রবারই ৮ টি বিধানসভা কেন্দ্রের জন্যে ৭ টি ডিস্ট্রিবিউশন সেন্টার থেকে ভোট কর্মীদের ইভিএম সহ অন্যান্য ভোট সামগ্রী প্রদানের কাজ শুরু হয়। কোভিড বিধি অনুযায়ী সকল ভোটকর্মীকে মাস্ক পরা ও স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ভোটকর্মীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে থার্মাল গান। শুক্রবার সমস্ত কিছুই পরীক্ষা নিরীক্ষা করে নিজ নিজ ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে পৌঁছান ভোট কর্মীরা। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী পূর্ব বর্ধমান জেলায় পঞ্চম দফার আটটি বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য ১৩ হাজার ৪৮৮ জন ভোট কর্মী নিয়োগ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রিসাইডিং অফিসার রয়েছেন ৩ হাজার ৩৭২ জন। ফাস্ট পোলিং অফিসার ৩ হাজার ৩৭০ জন, সেকেন্ড পোলিং-য়ে থাকছেন ৩ হাজার ৩৭৩ জন। এবং থার্ড পোলিং-য়ে রয়েছেন ৩ হাজার ৩৭৩ জন। জেলা নির্বাচন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব বর্ধমান জেলায় পঞ্চম দফায় ২ হাজার ৮১০ টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে মহিলা বুথের সংখ্যা ৪৪৪ টি। মহিলা ভোট কর্মী রয়েছেন ২ হাজার ১৩৬ জন।


পঞ্চম দফার ভোট কে অবাধ ও সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করার জন্য নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর। আগামীকালকের ভোটে রাজ্য পুলিশের ৫ হাজার ২০০ জন কর্মী ও আধিকারিক এবং ১৫৩ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। এবার নির্বাচন কমিশন তথা পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো স্পর্শকাতর বুথের পরিসংখ্যায়ন দেওয়া হয়নি। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, স্পর্শকাতর বুথ হিসেবে কোনও বুথকে চিহ্নিতকরণ না করে পরিবর্তে ভালনারেবল ও ক্রিটিক্যাল বুথ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে সমস্ত বুথকেই। আর তাই প্রতি বুথেই থাকছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।


থাকবেন রাজ্য পুলিশের একজন করে লাঠিধারী কর্মীও। পঞ্চাশ শতাংশ বুথে ব্যবস্থা থাকছে ওয়েব কাস্টিংয়ের।
এছাড়া ১৫১ টি কুইক রেসপন্স টিম (কিউআরটি) থাকছে। এই টিমে একজন করে পুলিশ আধিকারিক থাকবেন। এছাড়াও থাকছে আরও বেশ কয়েকটি টিম। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব বর্ধমান জেলায় পঞ্চম দফার ভোটে মোট ২৮১০টি বুথে পুরুষ ভোটকর্মী থাকছেন ১১ হাজার ৩৫২ জন ও মহিলা ভোটকর্মী ২১৩৬ জন। 


উল্লেখ্য, গত ৯এপ্রিল থেকে ১৬এপ্রিল পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় নতুন করে ৮২৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই গড়ে প্রতিদিন জেলায় শতাধিক মানুষ ফের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দপ্তর। শুত্রুবার জেলায় মোট ১০৬জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে, কয়েকজনের করোনায় মৃত্যও ঘটেছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সরকারী হিসাবে করোনাজনিত কারণে কোনো মৃতের সংখ্যা জানানো হয়নি। উল্লেখ্য, সরকারী হিসাবে প্রথম ধাক্কায় করোনায় পূর্ব বর্ধমান জেলায় মৃত্যু হয়েছিল ১৮০জনের।

0 Comments: