Headlines
Loading...
বর্ধমানে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা, তৈরী হল টাস্ক ফোর্স

বর্ধমানে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা, তৈরী হল টাস্ক ফোর্স


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: হু হু করে বাড়ছে করোনা। গোটা দেশের সঙ্গে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পূর্ব বর্ধমান জেলাতেও করোনা সংক্রমণের সংখ্যা। রবিবার জেলায় ২৭৭ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এর মধ্যে সবথেকে বেশি করোনা সংক্রমণ ঘটেছে বর্ধমান পুরসভা এলাকায় ১১৫ জন। সোমবার ফের ১৫৩ জন মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন জেলায়। যার মধ্যে বর্ধমান পুর এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৭জন। পাশপাশি অন্য মহকুমা এবং ব্লকগুলিতেও সংক্রমণ ক্রমশই বাড়ছে। তবে সবথেকে বেশি উদ্বেগের কারণ হয়েছে পুরসভা এলাকাগুলিই। তার মধ্যে বর্ধমান পুরসভা এলাকায় সংক্রমণ রেকর্ড পার করে ফেলেছে। এদিকে, খোদ বর্ধমান পুর এলাকায় দ্রুতহারে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সোমবার বর্ধমান পুরসভায় জরুরী বৈঠকে বসলেন পুরসভা কর্তৃপক্ষ। 

বর্ধমান পুরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসার অমিত গুহ জানিয়েছেন, এদিন এই বৈঠকে হাজির ছিলেন বর্ধমান পুরএলাকার সমস্ত ব্যবসায়ী সংগঠন, স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তারা, দমকল বিভাগের আধিকারিকরা এবং পুরসভার আধিকারিকরা। প্রথম দফার করোনা পরিস্থিতিতে যে সমস্ত নিয়মবিধি লাগু ছিল সে সবের মধ্যে সবথেকে এবার বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ববিধিকে মেনে চলার বিষয়ে। গোটা বিষয়টি দেখার জন্য তৈরী করা হল একটি টাস্ক ফোর্স কমিটিও। এই কমিটিতে থাকছেন ব্যবসায়ীক সংগঠনের প্রতিনিধিরাও।


অমিতবাবু জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতি ফের দ্রুত খারাপ হচ্ছে। তাই বর্ধমান পুরসভা ইতিমধ্যেই পুর নাগরিক দের সচেতন করার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত লাগাতার পুরসভার পক্ষ থেকে মাইকিং করে প্রচার চালানো হচ্ছে। প্রচারে বলা হচ্ছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ছে। সুতরাং সকলকে সাবধান হতে হবে। পাশপাশি করোনা সংক্রান্ত সরকারি নিয়মবিধি মেনে চলতে হবে। মাস্ক অবশ্যই পরে থাকতে হবে। নির্দিষ্ট দুরত্ববিধি বজায় রাখতে হবে। অমিত বাবু জানিয়েছেন, মাস্ক পরাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। মাস্ক না পরলে জরিমানা সহ আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন বাজার, শপিং মল প্রভৃতি এলাকায় করোনা বিধি মানা হচ্ছে কিনা তা প্রতিনিয়ত নজরদারী করা হবে। তবে এখনই বাজার বন্ধ বা নিয়ম মেনে খোলার মত কোনো বিধি চালু হচ্ছে না।


0 Comments: