Headlines
Loading...
 বনধে কোনো প্রভাবই পড়ল না বর্ধমানে

বনধে কোনো প্রভাবই পড়ল না বর্ধমানে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: শুক্রবার বাম-কংগ্রেসের ডাকা ১২ ঘণ্টার বাংলা বনধে বর্ধমান শহরে তেমন কোনো প্রভাবই পড়ল না। যদিও বনধে গোটা রাজ্যের পাশাপাশি বর্ধমানেও জায়গায় জায়গায় সাময়িক রাস্তা ও রেল অবরোধ করলেন বনধ সমর্থনকারীরা। এদিন সকাল থেকেই বিশেষ করে বাম সমর্থকরা বর্ধমান শহরের কার্জনগেট সংলগ্ন জিটি রোড অবরোধ করে।জোর করে সরকারী বাস সহ অন্য পরিবহণ আটকানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। অবরোধকারীদের সারাতে গেলে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় বনধ সমর্থনকারীদের। পরে তারাই পুলিশ কে গোলাপ দিয়ে গান্ধীগিরি দেখায়। তবে সাকুল্যে ২০মিনিটের মধ্যেই রাস্তা ফাঁকা করে দেয় পুলিশ। এই সময়টুকু ছাড়া সারাদিনে আর বাম-কংগ্রেস কাউকে রাস্তায় দেখা যায়নি।



 এদিন বনধ সমর্থনকারীরা পালসিট ষ্টেশনে কিছুক্ষণের জন্য রেল অবরোধ করেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁদের তুলে দেয়। এদিন বনধ নিয়ে সিপিএমের জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য গণেশ চৌধুরী জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে বনধ সমর্থন করেছেন। তিনি দাবী করেছেন, বৃহস্পতিবার নবান্নে যেভাবে ছাত্র যুবদের ওপর পুলিশ বর্বরোচিত অত্যাচার চালিয়েছে তার প্রতিবাদ হিসাবে এদিন স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে এসেছেন। উল্লেখ্য, এদিন বাম-কংগ্রেসের ডাকা এই বনধে বর্ধমান জেলা জুড়েই অধিকাংশ বাজার দোকানই ছিল অন্যান্যদিনের মতই খোলা ও স্বাভাবিক। গাড়ি যাতায়াতও সকালের দিকে কিছু জায়গায় বনধ সমর্থনকারীরা আটকানোর চেষ্টা করলে পুলিশ দ্রুত হস্তক্ষেপ করে। যদিও বামেদের পক্ষ থেকে এই বনধকে সফল বলা হলেও শাসকদলের পক্ষ থেকে এই বনধ 
সম্পূর্ন ব্যর্থ বলে জানানো হয়েছে।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});