Headlines
Loading...
বর্ধমানে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে অভিষেকের আনা মামলার জবাব দিতে সময় চেয়ে নিলেন শুভেন্দুর আইনজীবী

বর্ধমানে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে অভিষেকের আনা মামলার জবাব দিতে সময় চেয়ে নিলেন শুভেন্দুর আইনজীবী


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের আনা মানহানি মামলায় জবাব দিতে আদালতের কাছে সময় চেয়ে নিলেন শুভেন্দু অধিকারীর আইনজীবী বলরাম গুপ্তা। বৃহস্পতিবার ছিল এই মামলার জবাব দেওয়ার শেষ দিন। এদিনই শুভেন্দু অধিকারীর আইনজীবী বর্ধমানের প্রথম সিভিল জজ সিনিয়র ডিভিশন আদালতে বিচারকের কাছে এই মামলায় পাল্টা জবাব দেওয়ার সময় চেয়ে নেন। বিচারক তা মঞ্জুর করেন। উল্লেখ্য, গত ৪ ফেব্রুয়ারী শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। 


বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী সাম্প্রতিক সময়ে তৃণমূল সাংসদ তথা মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে যে ধরণের মন্তব্য করছেন – তার পরিপ্রেক্ষিতে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে তাঁর কণ্ঠরোধ করার অভিপ্রায়ে অন্তর্বতীকালীন আদেশ আনতে চেয়ে আবেদন করলেও বিচারক তা প্রাথমিকভাবে খারিজ করে দেন। বিচারক ৭দিনের মধ্যে শুভেন্দু অধিকারীকে কেন তাঁর বিরুদ্ধে অন্তর্বতীকালীন আদেশ জারী করা হবে না - তার কারণ দর্শাতে বলেন। উল্লেখ্য, আদালতে অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের আইনজীবী অমিত কুমার নাগ এই মামলা দায়ের করেন। 


এদিকে অভিষেক বন্দোপাধ্যায় আইনজীবী মারফত আদালতে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে যে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন তাতে তিনি উল্লেখ করেছেন, সম্প্রতি মেদিনীপুরের খেজুরির একটি সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী অভিষেক বন্দোপাধ‌্যায়ের বিরুদ্ধে তোলাবাজ ভাইপো সহ একাধিক ভাষায় আক্রমণ শানান। এই ঘটনায় অত্যন্ত প্রভাবশালী, স্বচ্ছ ইমেজের জননেতা হিসাবে সাধারণ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য অভিষেকবাবুর সম্মান হানি হয়েছে। শুধু তাই নয়, শুভেন্দুবাবুর এই বক্তব্য দ্রুততার সঙ্গে ভাইরাল হয়েছে। এব্যাপারে আদালতে বর্ধমানের গলসীর বাসিন্দা সেখ ডালিমের কাছ থেকে পাওয়া একটি ভিডিও ফুটেজ এবং একটি পেন ড্রাইভ আদালতে জমা দেওয়া হয়। 


অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের আইনজীবী আদালতে জানান, তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে লাগাতার এই মিথ্যা অপপ্রচার তাঁর ভাবমূর্তিকে নষ্ট হচ্ছে। এমতবস্থায় তাঁর মক্কেলের সম্মানহানি রুখতে এই ধরণের বক্তব্য যাতে শুভেন্দু অধিকারী দিতে না পারেন তার জন্য এই অন্তবর্তীকালীন স্থগিতাদেশ জারীর আবেদন করেন। যদিও বিচারক তা প্রাথমিকভাবে খারিজ করে দেন। একইসঙ্গে তিনি ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিন। বৃহস্পতিবার এই মামলায় শুভেন্দু অধিকারীর আইনজীবী বলরাম গুপ্তা বিচারকের কাছে এই মামলায় তাঁদের জবাবদিহি দাখিল করার জন্য অতিরিক্ত সময় চেয়ে নেন। আগামী ৩ মার্চ পরবর্তী শুনানির দিন।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});