Headlines
Loading...
জামালপুরে হনুমানের আক্রমণে একমাসে আহত প্রায় ৩০জন গ্রামবাসী, এখনো অধরা হনু, ক্ষোভ

জামালপুরে হনুমানের আক্রমণে একমাসে আহত প্রায় ৩০জন গ্রামবাসী, এখনো অধরা হনু, ক্ষোভ


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,জামালপুর: হনুমানের তান্ডবে ঘুম উড়েছে গ্রামবাসীদের। কার্যত গ্রামের ৮ থেকে ৮০ সবাই লাঠি হাতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন দিনরাত। ইতিমধ্যেই হিংস্র হনুমানের আক্রমণে কমবেশি আক্রান্ত হয়েছেন গ্রামের প্রায় ৩০জন মানুষ। ঘটনাটি ঘটছে পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর থানার আবুঝাটি এলাকার দুটি গ্রামে। গ্রামবাসীদের দাবি গত একমাস ধরে বেশ কয়েকটি বাঁদর গ্রামের মধ্যে উৎপাত করে বেড়াচ্ছে। তার মধ্যে একটি বাঁদর ক্ষেপে গিয়ে মানুষকে যত্রতত্র আক্রমণ করছে। বুধবার রাতেও এমনই একটি ঘটনা ঘটে। এক বৃদ্ধা কে বাড়ির ভেতরে ঢুকে কামড়ে হাতের মাংস তুলে নেয়। স্বাভাবিকভাবেই প্রতিদিন এই বাঁদরের আতংকে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে কুলিনগ্রাম, গোকুল সহ আশপাশ এলাকায়। 



স্থানীয় কুলিনগ্রামের বাসিন্দা মহ: জাভেদ আলী জানান, গত একমাস ধরে বাঁদরের উৎপাত নিয়ে বারবার জানানো হয়েছে প্রসাশন কে। কিন্তু একদুবার পুলিশ আসলেও বাঁদরের হদিস তারা করতে পারেনি। সমস্যার সমাধান হয়নি। বনদপ্তরের আধিকারিকরা এলেও তারাও আটক করতে পারেনি ওই বাঁদর টিকে। জামালপুরের বিডিও শুভঙ্কর মজুমদারের জানান, বনদপ্তরের পক্ষ থেকে বারবার চেষ্টা চালিয়েও তারা নির্দিষ্টভাবে হিংস্র বাঁদরটিকে চিহ্নিতকরণ করতে পারছেনা। যার ফলে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে গ্রামবাসীদের।

এদিকে দিনের পর দিন বাঁদরের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠা গ্রামবাসীরা সরাসরি ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন প্রশাসনের উপর। তাঁরা জানিয়েছেন, অবিলম্বে নয় বাঁদর টিকে ধরার ব্যবস্থা করুক তারা নয়তো এবার গ্রামবাসীরাই ব্যবস্থা নেবে। বাঁদরাতঙ্কে কার্যত ঘুম উড়েছে গোকুল এলাকার গ্রামবাসীদের। শিশু কিংবা বৃদ্ধ প্রত্যেকেই ঘুরে বেড়াচ্ছে লাঠি হাতে।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});