Headlines
Loading...
বর্ধমানে নাড্ডার রোড শো উপলক্ষে ফ্লেক্স লাগানোর সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট এক ফ্লেক্স কর্মী, চাঞ্চল্য

বর্ধমানে নাড্ডার রোড শো উপলক্ষে ফ্লেক্স লাগানোর সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট এক ফ্লেক্স কর্মী, চাঞ্চল্য


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: আগামীকাল বর্ধমানে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।বর্ধমান শহরে তিনি রোড শো করবেন। আর নাড্ডার এই রোড শো কে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য শহর জুড়ে লাগানো হচ্ছে হোর্ডিং, ফ্লেক্স। শুত্রুবার সন্ধ্যায় এই ধরণের একটি ফ্লেক্স লাগানোর সময়ই ঘটে গেল দুর্ঘটনা। জানা গেছে, বর্ধমান সেন্ট্রাল কো অপারেটিভ ব্যাঙ্কের সামনে একটি বিদ্যুতের ট্রান্সফরমারের গায়ে একটি মোনোপোলে উঠে শেখ রাজু নামে একজন ফ্লেক্স কর্মী ২০ফুট বাই ১০ফুটের একটি ফ্লেক্স লাগানোর সময় বিদ্যুতের ১১হাজার লাইনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। 


ঘটনাস্থলেই ওই কর্মীর শরীরে আগুন ধরে যায়। ট্রান্সফরমারের একটি লোহার এঙ্গেলে বেসামাল হয়ে ঝুলে পড়েন ওই ব্যক্তি। তাকে উদ্ধার করতে তড়িঘড়ি ট্রান্সফরমারের জাম্পার নামিয়ে দিলেও ১১হাজার লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা যায়নি। দ্রুত দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত ওই কর্মীকে উদ্ধার করে নীচে নামিয়ে আনে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে চিকিৎসার জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।


 এদিকে যে মোনোপোলে ফ্লেক্স লাগানোর সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে সেই মোনোপোল এজেন্সির পক্ষ থেকে জানতে পারা গেছে, এই ফ্লেক্স লাগানোর জন্য উপযুক্ত কোনো অনুমতি কেউ নেয়নি। এমনকি যারা এই ফ্লেক্স লাগাচ্ছিল তারাও এই কাজে কতটা পটু তা নিয়েও সংশয় তৈরি হয়েছে। এজেন্সি সূত্রে জানতে পারা গেছে, সাধারণত মোনোপোল গুলিতে ফ্লেক্স লাগানোর জন্য
ইমেল করার পর সম্মতিসূচক অনুমতি না পেলে ফ্লেক্স লাগানো যায়না। এক্ষেত্রে একটা ইমেল করলেও ফ্লেক্স লাগানোর কোনো অনুমতি ছিল না। সুতরাং বিনা অনুমতিতে কিভাবে, কারা এই ফ্লেক্স লাগানোর কাজ করছিল সে ব্যাপারে তৈরি হয়েছে ঘোর বিভ্রান্তি।

0 Comments: