Headlines
Loading...
১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধমান আদালতের কাজকর্ম না করার সিদ্ধান্ত বারের, ক্ষোভে ফুঁসছে আইনজীবীদের একাংশ

১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধমান আদালতের কাজকর্ম না করার সিদ্ধান্ত বারের, ক্ষোভে ফুঁসছে আইনজীবীদের একাংশ


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বর্ধমান আদালতের ৪ আইনজীবী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় পরিপ্রেক্ষিতে আগামী ৭ ডিসেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমস্ত
আইনজীবী কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল। বর্ধমান আদালতের বার অ্যাসোসিয়েশনের বৈঠকে শুত্রুবার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন, বারের সম্পাদক সদন তা। যদিও বারের এই সিদ্ধান্তের বিপরীত প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বারেরই সদস্য আইনজীবীদের একাংশ। আর আদালতের কাজে আগামী কয়েকদিন যে ফের অচলাবস্থা সৃষ্টি হতে পারে এই সিদ্ধান্তে এবং পাল্টা সিদ্ধান্তে এই আশঙ্কাই করছেন জেলার বিচারপ্রার্থীদের একাংশ।


সদন বাবু জানিয়েছেন, বর্ধমান আদালতের ৪জন আইনজীবী করোনায় আক্রান্ত। ফলে তাঁরা রীতিমত আতংকে রয়েছেন। চলতি সময়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গোটা জেলায় ক্রমবর্ধমান। ফলে তাঁরা বাধ্য হয়েই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এদিকে করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন আদালতের কাজ বন্ধ ছিল। মাসখানেক হল আদালতের কাজ স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। এমতবস্থায় ফের করোনার অজুহাতে আদালতের কাজকর্ম বন্ধ রাখার বারের এই সিদ্ধান্তে রীতিমত ক্ষোভে ফুঁসছে আদালতের সিংহভাগ জুনিয়র আইনজীবী। 


আইনজীবী কমল দত্ত জানিয়েছেন, এমনিতেই করোনার জেরে আইনজীবীরা সংকটে রয়েছেন। তার ওপর দফায় দফায় আদালতের কাজকর্ম বন্ধ রাখায় তাঁদের ক্ষতি পাশাপাশি বিচারপ্রার্থীদেরও ক্ষতি। ফলে এদিনই বারের জুনিয়র আইনজীবীদের একাংশ জানিয়েছেন, সোমবারও তাঁরা অনান্যদিনের মতোই কাজে যোগ দেবেন। সেক্ষেত্রে বারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যাওয়ায় তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হলেও তাঁরা তা নিয়ে চিন্তিত নন। কারণ সেক্ষেত্রে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দিষ্ট নির্দেশ রয়েছে।

0 Comments: