Headlines
Loading...
সোমবার নাকি ফোঁটা নেই! মাথায় হাত বর্ধমানের মিষ্টি ব্যবসায়ীদের

সোমবার নাকি ফোঁটা নেই! মাথায় হাত বর্ধমানের মিষ্টি ব্যবসায়ীদের


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: সোমবার নাকি ভাইফোঁটা হবে না। সোমবারে ফোঁটা নিষেধ – ভাইফোঁটার আগের দিন মিষ্টির দোকানগুলিতে খদ্দের না আসায় এই আলোচনাই তুঙ্গে উঠল। বর্ধমান শহরের নামী মিষ্টির দোকান নেতাজী মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের কর্ণধার সৌমেন দাস জানিয়েছেন, প্রতিবারের মত এবারও তাঁরা ভাইফোঁটার জন্য সমস্তরকমের প্রস্তুতি নিয়েছেন। প্রতিবারের মত এবারও তাঁরা নতুন কিছু মিষ্টি তৈরী করেছেন যা ভাইফোঁটা স্পেশ্যাল – কিন্তু রবিবার সকাল থেকেই তাঁরা শুনছেন সোমবার নাকি ফোঁটা নেই। ফলে তাঁরা অথৈ জলে পড়েছেন। 


তিনি জানিয়েছেন, এবছর তাঁরা হরেক স্বাদের সন্দেশ ছাড়াও মিহিদানা মালাই চকোলেট, স্পাইসি স্বাদযুক্ত চিলি কালাকাঁদ. পোস্ত কদম, নলেন গুড়ের বিভিন্ন পদ তৈরী করেছেন। কিন্তু সকাল থেকে খদ্দেরের দেখা নেই। প্রতিবার যখন ভাইফোঁটার আগের দিন দোকানে দোকানে ভিড় উপচে পড়ে এখনও তার দেখা নেই।


একইকথা বলেছেন শক্তিগড়ের ল্যাংচা ব্যবসায়ী সৌমেন সাহা। তিনি জানিয়েছেন, করোনার কারণে নিজের বাড়ি ছেড়ে এই সময় অন্যত্র অনেকেই যেতে চাইছেন না। আবার রাজ্যের অন্য জায়গা থেকে আরেক জায়গায় গিয়ে ফোঁটা নেওয়ার ঝুঁকিও অনেকেই নিতে চাইছেন না।ফলে এবছর জাতীয় সড়কের উপর শক্তিগড় এলাকার মিষ্টির দোকানগুলোতে কেনাকাটার হাল খুব খারাপ। তার মধ্যে সোমবার ভাইফোঁটা পড়ায় এদিন নাকি ফোঁটা নেই, তাই এবারে চাহিদাও তলানিতে।


  যদিও এরই মাঝে বর্ধমানের অপর মিষ্টি ব্যবসায়ী গণেশ মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের কর্ণধার প্রসেনজিত দাস জানিয়েছেন, সাধারণভাবে সারাবছর যে খদ্দের থাকে এখনও তাই। তবে তাঁরা আশা করছেন খদ্দের আসবে। তিনি জানিয়েছেন, এবার তাঁরা কাজু বরফি,মধুর মিষ্টি, সরের মিষ্টি, মোতিচুর লাড্ডু, শোনপাপড়ি প্রভৃতি নতুন স্বাদের মিষ্টি তৈরী করেছেন ভাইফোঁটাকে সামনে রেখে। তবে গতবছরের ভাইফোঁটার যে বাজার ছিল সেই তুলনায় এবছর বাজার বাস্তবে মন্দাই।

0 Comments: