Headlines
Loading...
বর্ধমান জেলায় সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েতে সোলার পাম্পে পানীয় জলের ব্যবস্থা

বর্ধমান জেলায় সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েতে সোলার পাম্পে পানীয় জলের ব্যবস্থা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: চলতি বছরে এবং আগামী ২০২১ এর জানুয়ারী মাসের মধ্যে পূর্ব বর্ধমান জেলার সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েতে জনবহুল এলাকায় একটি করে সোলার পাম্প তৈরীর পরিকল্পনা হাতে নিল পূর্ব বর্ধমান জেলা নির্মল বাংলা সেল। পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের জনস্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ বাগবুল ইসলাম জানিয়েছেন, সম্প্রতি জেলা পরিষদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 


তিনি জানিয়েছেন, প্রথম ধাপে প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতে একটি করে এই সোলার পদ্ধতিতে পানীয় জলের পাম্প লাগানো হবে। দ্বিতীয় ধাপে প্রয়োজন অনুসারে আরও পাম্প বসানো হবে। তিনি জানিয়েছেন, প্রথম ধাপে পূর্ব বর্ধমান জেলায় ২২৫টি এই পাম্প বসানো হবে। এজন্য খরচ ধরা হয়েছে ৯ কোটি ৪৫ লক্ষ টাকা। প্রতিটি পাম্পের জন্য খরচ ধরা হয়েছে ৪২ হাজার টাকা। তিনি জানিয়েছেন, এই সোলার পদ্ধতিতে পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হলে তা এলাকার মানুষের পানীয় জলের সমস্যা অনেকটাই মেটাতে সক্ষম হবে। 


উল্লেখ্য, এরই পাশাপাশি গোটা জেলায় ২৪টি ইকো রিক্সা দেওয়া হচ্ছে। এর মাধ্যমে এলাকার জঞ্জাল বহনের কাজ করা হবে। এজন্য খরচ ধরা হয়েছে মোট ২৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা। এরই পাশাপাশি জেলার এসএসকে এবং এমএসকে স্কুলগুলিতে শৌচাগার নির্মাণের জন্যও ৮৩ লক্ষ ৯৭ হাজার ২৩৯ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এদিকে, ঠাণ্ডা পড়তেই জেলা জুড়ে ডেঙ্গু সহ পতঙ্গবাহিত রোগ এবং চলতি করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েত এবং পঞ্চায়েত সমিতিতে ৫০০টি স্প্রে মেশিন দেবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এজন্য খরচ পড়ছে ২০ লক্ষ টাকা। 


অপরদিকে, গতবছর জেলার বেশ কিছু গ্রামীণ এলাকায় পানীয় জলের কলের বেসমেণ্টগুলি নষ্ট হওয়ায় পানীয় জল দূষণের আশংকা দেখা দিয়েছিল। তাই ইতিমধ্যেই এই সমস্ত পানীয় জলের কল এলাকায় পাকা ড্রেন, শকপিট এবং কলতলাগুলিকে পাকাপোক্তভাবে বাঁধিয়ে দেবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মোট ৩৮৩৭টি জায়গায় এই কাজের জন্য খরচ হচ্ছে ৭ কোটি ৬৭ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা। বাগবুলবাবু জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই এই সমস্ত কাজ অনেকটাই এগিয়ে গেছে। তাঁরা আশা করছেন আগামী জানুয়ারী মাসের মধ্যেই সমস্ত কর্মসূচীর কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।

0 Comments: