Headlines
Loading...
বর্ধমানে স্টেশন মোড়ে ভবঘুরেদের পিষে মেরে দেবার ঘটনায় আটক এক

বর্ধমানে স্টেশন মোড়ে ভবঘুরেদের পিষে মেরে দেবার ঘটনায় আটক এক


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: সম্প্রতি বর্ধমান শহরের ষ্টেশন মোড়ে রাত্রি প্রায় সাড়ে এগারোটা নাগাদ একটি চারচাকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাতের পাশে ঘুমিয়ে থাকা দুই ভবঘুরেকে চাপা দিয়ে মেরে দেবার ঘটনার পর জেলা পুলিশ সেই ঘটনায় কে বা কারা দায়ী তা নিয়ে জোরদার তদন্ত শুরু করেছিল। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছিল, পুলিশ এই ঘটনায় ঘাতক গাড়ির খোঁজে ব্যাপক তল্লাশি শুরু করেছে। এমনকি ঘটনার দিন ষ্টেশন মোড়ে ট্রাফিক পুলিশের থাকা সিসিটিভি বন্ধ থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছিল। আর তাই পুলিশ ষ্টেশন অভিমুখের অন্যান্য রাস্তা ও অন্যান্য দোকানের সামনে লাগানো সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্ত শুরু করে। পাশাপাশি ঘটনার সময় উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে গাড়ির বিবরণ জেনে গাড়িটিকে খুঁজে বের করার চেষ্টাও চালায়।


  পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের ডিএসপি (হেড কোয়ার্টার) শৌভিক পাত্র জানিয়েছিলেন, ঘটনাচক্রে ওইদিন সিসিটিভির ফিউজ কেটে যাওয়ায় সিসিটিভি বন্ধ হয়ে যায়। যদিও পরের দিনই বিষয়টি জানতে পেরে তাঁরা দ্রুত তা মেরামতও করে দেন। অন্যদিকে, পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিকভাবে তাঁরা অন্যান্য যে সমস্ত সিসিটিভি ফুটেজ পেয়েছেন তা থেকে তাঁরা প্রাথমিক সিদ্ধান্তে এসেছেন জেলখানা মোড় থেকেই ওই চারচাকা গাড়িটি ষ্টেশনের দিকে এসেছিল। পরে তদন্তে দেখা গেছে, ঘাতক গাড়িটি জেলখানা মোড়ের একটি পানশালা সংলগ্ন এলাকা থেকে বেরিয়ে দ্রুত রেল ফ্লাই ওভারের দিকে যাবার চেষ্টা করেছে। 

পুলিশের প্রাথমিক অনুমান ছিল গাড়ির চালক মদ্যপ অবস্থায় থাকার কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। সেই মত তদন্তে নেমে যে তথ্য সংগ্রহ করেছে তারই ভিত্তিতে সোমবার বর্ধমান থানার পুলিশ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঘটনার দিন ঠিক কি ঘটেছিল, গাড়িতে কজন ছিল, গাড়ি কে চালাচ্ছিল, গাড়িটি কোন জায়গা থেকে আসছিল বা কোথায় যাচ্ছিল ইত্যাদি নানা প্রশ্নের উত্তর খোঁজার কাজ শুরু করেছে। 


বিশেষ সূত্রে জানতে পারা গেছে, সোমবার দুপুর তিনটে নাগাদ বর্ধমান শহরের দুবরাজদীঘি এলাকার একটি ব্যাংকে বর্ধমান থানার পুলিশ হানা দিয়ে এই ঘটনায় যুক্ত সন্দেহে এক ব্যক্তিকে আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয়। জানা গেছে, ওই ব্যক্তির বাড়ি বর্ধমান শহরেই। যদিও, বর্ধমান পুলিশ এই ঘটনার বিষয়ে এদিনই বিস্তারিত ভাবে মুখ খুলতে চায়নি। তবে মর্মান্তিক সেই দুর্ঘটনার তদন্তে নেমে শেষমেষ যে একজনকে আটক করা গেছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত করেছে। পাশপাশি ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঘটনার মূলে পৌঁছনোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।


0 Comments: