728x90 AdSpace

Latest News

Thursday, 19 November 2020

গলসিতে অবৈধ বালি খাদানের দখলদারীকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত তিন


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,গলসি: অবৈধ বালি খাদানের  এলাকার দখলদারি এবং তোলাবাজি কে কেন্দ্র করে দুটি গোষ্ঠীর ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়াল গলসি ২ব্লকের দক্ষিণ ভাসাপুল মাঝের মানা দামোদরের চড়ে। সংঘর্ষের ঘটনায় তিনজন গুরুতর জখম হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার দুপুর ২টো নাগাদ। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাঝের মানা এলাকায় একটি গোষ্ঠী দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ভাবে নদীর যে এলাকা থেকে বালি তুলতো আচমকাই সেই এলাকার পরিমান বাড়িয়ে দেয়। এরফলে পাশের বালি খাদানের কর্মরত শ্রমিকরা আপত্তি তোলে। আর এরপরই দুপক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। দুপক্ষই অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। গলসি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে দুষ্কৃতীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ। যদিও সংঘর্ষে তিনজনের হাত ভেঙেছে বলে জানা গেছে। আহতদের উদ্ধার করে বর্ধমানে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। গ্রামবাসী এবং আহতদের পক্ষ থেকে একে অপরের বিরুদ্ধে গলসি থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও ঘটনায় জড়িত এখনো কেউ গ্রেফতার হয়নি। 


উল্লেখ্য, চলতি বছরের প্রথম রাতে গলসির শিকারপুর ঘাট থেকে অতিরিক্ত বালি বোঝাই লরি রাস্তার পাশে একটি বাড়ির উপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যাওয়ায় একই পরিবারের পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছিল। সেই ঘটনায় রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল শিকারপুর সহ আশপাশের বেশ কয়েকটি এলাকা। উত্তেজিত গ্রামবাসীরা বালি ঘাটের অফিস থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ টাকার মেশিন আগুন লাগিয়ে নষ্ট করে দেয়। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় ওই এলাকার ৮ টি বালি খাদান কে। এদিকে গলসি এলাকার একাধিক অবৈধ বালি খাদানগুলিকে কেন্দ্র করে প্রায়ই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শাসক ও বিরোধী দল উভয়েই এই ঘটনাগুলোর জন্য একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করছে। ফের মাঝের মানা এলাকার বালি খাদানের দখলদারি আর তোলাবাজির ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হল বলে মনে করা হচ্ছে।
গলসিতে অবৈধ বালি খাদানের দখলদারীকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত তিন
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top