728x90 AdSpace

Latest News

Sunday, 11 October 2020

ক্লাবকে চাঁদা নয়, সেই টাকা দিন গরীব মানুষকে – বর্ধমানে নজীরবিহীন আবেদন পুজো উদ্যোক্তাদের

ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: দুর্গাপুজোর জন্য এতদিন যে চাঁদা দিতেন, এবার সেই চাঁদা ক্লাব বা পুজো উদ্যোক্তাদের নয়, কোনো গরীব মানুষকে দান করুন। আসন্ন দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে এরকমই নজীরবিহীন আবেদন জানালো বর্ধমানের সর্বমিলন সংঘ। ক্লাবের সম্পাদক বিশ্বজিত মণ্ডল জানিয়েছেন, প্রতিবছর সর্বমিলন সংঘের থিম বর্ধমানের মানুষকে আকর্ষিত করে। কিন্তু এবছর করোনার জন্য তাঁরা আহামরি কোনো উদ্যোগই নিচ্ছেন না।


 তিনি জানিয়েছেন, আকর্ষণীয় কিছু করলেই যেহেতু লোকসমাগম বেড়ে যাবার সম্ভাবনা থাকবে তাই তাঁদের এবার পুজো হবে কয়েকদশক আগের পুজোর মতই। ডাকের সাজের প্রতিমা থাকছে। থাকছে সর্বমিলন সংঘের মাঠ কে ঘিরে আলোকসজ্জাও। তবে কোনো থিম থাকছে না এবছর। তবে এবছর করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য তাঁরা পঞ্চমীর দিন ১ হাজার নারী, পুরুষ, শিশুদের যাঁরা দুঃস্থ তাঁদের বস্ত্র দেবেন। একইসঙ্গে বিজয় দশমীর দিন তাঁরা ১০ হাজার মানুষকে ভোগ খাওয়াবেন সামাজিক দুরত্ববিধি মেনেই। 


বিশ্বজিতবাবু জানিয়েছেন, করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য যেহেতু এবছর সাধারণ মানুষ অত্যন্ত সংকটের মধ্যে রয়েছেন তাই তাঁরা কোনো চাঁদা সংগ্রহ করছেন না। তবে স্বেচ্ছায় কেউ তাঁদের কাছে দিয়ে গেলে তা গ্রহণ করবেন। তিনি জানিয়েছেন, উদ্ভূত পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই তাঁরা এলাকার মানুষের কাছে আবেদন করেছেন ক্লাবের পুজোর জন্য চাঁদা না দিয়ে তাঁরা গরীব মানুষকে দান করুন। যদিও বিশ্বজিতবাবু জানিয়েছেন, তাঁদের ক্লাবের ২০০ সদস্যদের মধ্যে ব্যবসায়ী, চিকিৎসক, শিক্ষক সহ সমাজের বিভিন্ন পেশার মানুষ রয়েছেন। এবারে সেই ক্লাব সদস্যদের চাঁদাতেই তাঁরা পুজো করছেন। বাজেট ধরা হয়েছে প্রায় ৮ লাখ টাকা।
ক্লাবকে চাঁদা নয়, সেই টাকা দিন গরীব মানুষকে – বর্ধমানে নজীরবিহীন আবেদন পুজো উদ্যোক্তাদের
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top