Headlines
Loading...
চারিদিকে জঙ্গী ধরপাকড়ের মাঝেই বর্ধমান ষ্টেশনে চালু লাগেজ স্ক্যানার, বসছে ৭ মেটাল ডিটেক্টর গেট

চারিদিকে জঙ্গী ধরপাকড়ের মাঝেই বর্ধমান ষ্টেশনে চালু লাগেজ স্ক্যানার, বসছে ৭ মেটাল ডিটেক্টর গেট


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বর্ধমান রেল স্টেশনের নিরাপত্তা আরও জোরদার করতে বসানো হচ্ছে মেটাল ডিটেক্টর মেশিন। পাশপাশি লাগেজ স্ক্যানার ও সি সি ক্যামেরাও বসানোর কাজ চলছে বলে রেল সূত্রে জানা গেছে। পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী জানিয়েছেন, পূর্ব রেল যাত্রীদের আরও নিরাপত্তা দিতেই এই আইএসএস চালু করেছে। গুরুত্বপূর্ণ ষ্টেশন যেগুলিতে প্রতিদিন যাত্রী যাতায়াত বেশি সেগুলিকেই প্রথম ধাপে নজর দেওয়া হয়েছে। তারই অঙ্গ হিসাবে লাগেজ স্ক্যানার, সিসিটিভি ক্যামেরা বা মেটাল ডিটেক্টর মেশিন বসানো হচ্ছে।



সম্প্রতি আল কায়েদা জঙ্গী সন্দেহে একাধিক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করার ঘটনায় ফের খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে বর্ধমানের খাগড়াগড়ের ২০১৪ সালের অভিশপ্ত সেই স্মৃতি। বর্ধমান ষ্টেশনকে নিশ্চিন্ত করিডর বানিয়ে খাগড়াগড়ে জঙ্গী ডেরা তৈরী করেছিল জেএমবি সদস্যরা। ২০১৪ সালের দুর্গাপুজোর অষ্টমীর দিন ভয়াবহ বিস্ফোরণ এবং পরে ২ জঙ্গীর মৃত্যুর ঘটনায় গোটা দেশ জুড়ে শুরু হয়ে যায় আলোড়ন। এরপরই বর্ধমান ষ্টেশনকে আরও সুরক্ষিত করার দাবীও জোড়ালো হয়ে ওঠে। 



মাঝে মাঝে ষ্টেশনে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেকিং করার মত কিংবা পুলিস কুকুর দিয়ে খোঁজখবর নেওয়ার কাজ করা হলেও তা যে নিতান্তই লোক দেখানো ব‌্যাপার হয়ে চলেছে তা বারবারই সমালোচিতও হয়েছে। স্মরণ করা যেতে পারে, ২০১৬ সালের জুলাই মাসে আই এস জঙ্গী বীরভূমের বাসিন্দা মহম্মদ মসিউদ্দিন ওরফে মুশাকে বর্ধমান ষ্টেশন থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি আল কায়েদা জঙ্গীদের কাজকর্ম প্রকাশ্যে আসতেই নড়চড়ে বসেছে রাজ্য প্রশাসনের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় রেল কর্তৃপক্ষও। 

গত প্রায় ১ বছর ধরেই দেশের গুরুত্বপূর্ণ ষ্টেশনগুলিতে আরও যাত্রী নিরাপত্তা দিতে এবং সুরক্ষার প্রশ্নে পূর্ব রেল আইএসএস বা ই্ন্টিগ্রেটেড সিকিউরিটি সিস্টেম চালু করে। আর তারই অঙ্গ হিসাবে এবার বর্ধমান ষ্টেশনেও বসল লাগেজ স্ক্যানার, ৭টি মেটাল ডিটেক্টর গেট এবং নতুন করে ৮০টি সিসিটিভি ক্যামেরা। উল্লেখ করা যেতে, খাগড়াগড় কাণ্ডের পরই কয়েকবছর আগেই একটি লাগেজ স্ক্যানার আনা হয় বর্ধমান ষ্টেশনে। কিন্তু আচমকাই সেটিতে আগুন ধরে পুড়ে যায়। ফলে থমকে যায় বর্ধমান ষ্টেশনের নিরাপত্তা বলয় সৃষ্টির কাজ। এরপর চলতি লকডাউন পর্বের মাঝেই ধাপে ধাপে শুরু হয়েছে এই সমস্ত অত্যাধুনিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত যন্ত্রাংশ বসানোর কাজ। 
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});