728x90 AdSpace

Latest News

Tuesday, 21 July 2020

ভাতারের বাসুদা গ্রামে শাশুড়ি কে পুড়িয়ে মারল জামাই, এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,ভাতার: মাসি শাশুড়ি আর শশুর কে পেট্রোল দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের বাসুদা গ্রামে। এই ঘটনায় জোৎস্না মালের(৩৮) ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে। শশুর অজিত মাল কে দগ্ধ অবস্থায় রাতেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন তিনি। ঘটনার পরই অভিযুক্ত কৃষ্ণ মাল এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ভাতার থানার পুলিশ কৃষ্ণ মালিক কে মেমারির হাসপুকুর মোড় থেকে গ্রেপ্তার করে। মঙ্গলবার অভিযুক্ত কৃষ্ণ মালিক কে বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়েছে। মৃত জ্যোৎস্না মালের পরিবারের লোকজনের দাবি কৃষ্ণ মালিকের কঠিন সাজা হোক। সমগ্র ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।


উল্লেখ্য,অভিযুক্ত কৃষ্ণ মালিকের বাড়ি হুগলির পান্ডুয়ায়। ভাতারের কুমারুন গ্রামে গঙ্গা মালিকের সঙ্গে আট বছর আগে তার বিয়ে হয়। তাদের সাত বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। গঙ্গা মালিকের অভিযোগ, গত শুক্রবার তাকে তার স্বামী মারধর করে এবং বাড়ী থেকে বের করে দেয়। সে পান্ডুয়া থেকে চলে আসে ভাতারের তার মাসির বাড়ি বাসুদা গ্রামে। এরপর তার স্বামী অর্থাৎ কৃষ্ণ মালিক গতকাল অর্থাৎ সোমবার তার মাসি শাশুড়ির বাড়ি বাসুদা গ্রামে আসেন। সেখানে তার মাসি শাশুড়ি জ্যোৎস্না মাল ও শ্বশুর অজিত মালের সঙ্গে ঝগড়াঝাঁটি করে এবং পুড়িয়ে মারার হুমকি দেয়।


গঙ্গা মালিকের অভিযোগ, কৃষ্ণ মালিক ঝগড়াঝাঁটি করে তার বোনের বাড়ি ভাতারের খুরুল গ্রামে চলে যায়। রাত্রি ১১ টার সময় ফিরে এসে ঘরে শুয়ে থাকা তার মাসি শাশুড়ি জ্যোৎস্না মাল ও অজিত মালকে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। ঘটনাস্থলেই তার শাশুড়ি জ্যোৎস্না মাল মারা যান। অজিত মাল কে দগ্ধ অবস্থায় রাতেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ভাতারের বাসুদা গ্রামে শাশুড়ি কে পুড়িয়ে মারল জামাই, এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top