728x90 AdSpace

Latest News

Friday, 10 July 2020

পুলিশের হোমগার্ডে ভুয়ো চাকরি চক্রে জড়িত সন্দেহে কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার আরও এক পান্ডা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: পুলিশের হোমগার্ডে চাকরি দেবার নাম করে প্রতারণা করার অভিযোগে আরও এক চাঁইকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতের নাম আকাশ কুমার সাউ। ধৃতের বাড়ি কলকাতার চিৎপুরের ঘোষবাগান এলাকায়। উল্লেখ্য, গত ৭ জুলাই পূর্ব বর্ধমানের রায়না থানার পুলিশ পুলিশের হোমগার্ডে চাকরি দেবার নাম করে লাগাতার প্রতারণা করার অভিযোগে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে। 


ধৃতদের নাম রাজেন হাজরা, সত্যজিত বিত্তর, সেখ জানারুল ওরফে পিণ্টু এবং নাজেম মল্লিক। রায়নার ভাগাবাটিপুরের বাসিন্দা বাপ্পাদিত্য পোড়েল নামে এক যুবক রায়না থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই রায়না থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে বর্ধমান থানার সহযোগিতায় শহরের আলিশা থেকে গ্রেপ্তার করে এই চাকরি চক্রের মূল পাণ্ডা রাজেন হাজরাকে। গ্রেপ্তার করা হয় তার সঙ্গী বাকি তিনজনকেও। 


এদের মধ্যে রাজেন হাজরা এবং সত্যজিতের বাড়ি বর্ধমানের শক্তিগর থানার কান্টিয়া গ্রামে। বাকিদের মধ্যে সেখ জানারুলের বাড়ি বর্ধমান শহরের বাহির সর্বমঙ্গলা পাড়ার বাথানপাড়ায় এবং নাজেম মল্লিকের বাড়ি জামালপুর থানার জানকুলি গ্রামে। এদিকে, রাজেন হাজরাকে গ্রেপ্তার করার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই পুলিশ কলকাতার এই আকাশ সাউয়ের কথা জানতে পারে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, এই আকাশই এই চক্রের মূল পাণ্ডা। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও তথ্য জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। শুক্রবার ধৃত আকাশ সাউকে গ্রেপ্তার করার পর বর্ধমান আদালতে পেশ করে পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানায় পুলিশ। বিচারক পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজত মঞ্জুর করেন।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রাজেন হাজরা সহ মোট ৪জনকে গ্রেপ্তার করার পর জেলার নাদুর, শক্তিগড় প্রভৃতি এলাকা থেকে পুলিশ ভূয়ো পরিচয়পত্র, পুলিশের পোশাক , ভূয়ো গেটপাস প্রভৃতি উদ্ধার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় ১৩জন প্রতারিত এদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করেছেন। 
পুলিশের হোমগার্ডে ভুয়ো চাকরি চক্রে জড়িত সন্দেহে কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার আরও এক পান্ডা
  • Title : পুলিশের হোমগার্ডে ভুয়ো চাকরি চক্রে জড়িত সন্দেহে কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার আরও এক পান্ডা
  • Posted by :
  • Date : July 10, 2020
  • Labels :
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top