728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 2 May 2020

বর্ধমানে রেশনে কারচুপির অভিযোগে উত্তেজনা মেহেদিবাগান এলাকায়


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: বৃহস্পতিবার বর্ধমানে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ঘোষণা করে গিয়েছিলেন, রেশনে কারচুপির কোনো অভিযোগ এলে সেই ডিলারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন। আর শনিবারই বর্ধমানের মেহেদিবান এলাকায় ওজনে কম চাল দেওয়ার অভিযোগে উত্তেজনা ছড়ালো বর্ধমানে। ওজনে কারচুপির বিষয়টি সামনে আসায় বিক্ষোভ শুরু করেন রেশন গ্রাহকরা। বিক্ষোভের জেরে সাময়িক রেশন দেওয়া বন্ধ হয়ে যায়। পরে বর্ধমান থানার পুলিশ গেলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। ওজনে কারচুপির অভিযোগ এক রকম মেনে নেন রেশন ডিলারের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মী। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো বর্ধমানের মেহেদিবাগান এলাকায়।

রেখা সামন্ত নামে বর্ধমান শহরের মেহেদিবাগানের ওই ডিলারের বিরুদ্ধে এলাকার উপভোক্তাদের অভিযোগ, শুক্রবার থেকেই এই রেশন দোকান থেকে চাল কম দেওয়া হচ্ছে। শনিবারও একই ভাবে কম চাল দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন এলাকার বাসিন্দারা। আর এদিন বিক্ষোভের মুখে পরেন রেশন দোকানের ম্যানেজার মানিক চক্রবর্তী। তিনি প্রথমে ওজনে কারচুপির অভিযোগ অস্বীকার করেন। তা নিয়ে কয়েকজন রেশন গ্রাহকের সঙ্গে তার বচসাও হয়।

গ্রাহকদের অভিযোগ, সরকার মাথা পিছু মাসে পাঁচ কেজি করে চাল বিনামূল্যে বিতরণের ব্যবস্থা করেছে। অথচ এই রেশন দোকানে মাথা পিছু প্রায় পাঁচশো গ্রাম করে কম চাল দেওয়া হচ্ছে। বচসা, বিক্ষোভের খবর পেয়ে ওই রেশন দোকানে পৌঁছায় বর্ধমান থানার পুলিশ। পুলিশ রেশন গ্রাহকের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করতেই ওজনে কম দেওয়ার কথা স্বীকার করে নেন রেশন ডিলারের ওই ম্যানেজার। তবে তাঁর দাবি, কাঁটা সরে গিয়ে ভুলবশত ওজনে কম হয়েছে।

এদিন যাঁদের কম চাল দেওয়া হয়েছিল তাদের বকেয়া মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেয় পুলিশ। গতকাল কাদের রেশন দেওয়া হয়েছিল তার তালিকা সংগ্রহ করে পুলিশ। তাদেরও প্রাপ্য বুঝিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। পুলিশের নির্দেশ মেনে সকলকে প্রাপ্য মিটিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেশন ডিলার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বর্ধমানে এসে গনবন্টন ব্যবস্থায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণে কোনও রকম কারচুপি বরদাস্ত করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন খাদ্য মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। রেশন সামগ্রী নিয়ে দুর্নীতি করলে কঠিন শাস্তি এমনকি জেল পর্যন্ত হতে পারে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। তার আগের দিন ওজনে কারচুপি হতে পারে বলে আশংকা করে জেলাশাসককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথও। তারপরও এভাবে কারচুপির ঘটনায় রীতিমত বিভ্রান্ত রেশন গ্রাহকরা।
বর্ধমানে রেশনে কারচুপির অভিযোগে উত্তেজনা মেহেদিবাগান এলাকায়
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top