Headlines
Loading...
বর্ধমানের রাস্তার বুক চিরে রং তুলি দিয়ে লেখা হচ্ছে করোনা সতর্কীকরণ প্রচার

বর্ধমানের রাস্তার বুক চিরে রং তুলি দিয়ে লেখা হচ্ছে করোনা সতর্কীকরণ প্রচার


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বারবার প্রশাসনিকভাবে লকডাউন মেনে চলার জন্য আবেদন জানানো সত্ত্বেও কিছু মানুষ জায়গায় জায়গায় লকডাউন ভাঙছেন। আর বাধ্য হয়েই মহামারীকে ঠেকাতে পুলিশকেও কোমড় বেঁধে আসরে নামতে হয়েছে। কেবলমাত্র বর্ধমান শহরেই কমবেশী প্রতিদিন লকডাউন ভাঙার দায়ে প্রায় ১০০জন বিভিন্ন বয়সের মানুষকে আটকও করা হচ্ছে।

এমতবস্থায় করোনাকে ঠেকাতে একমাত্র যে নিজেকে বাড়িতে স্বেচ্ছাবন্দি করে রাখাই শ্রেষ্ঠ উপায় – বারবার সেই প্রচার সত্ত্বেও কিছু মানুষ তা না শোনায় এবং এই বিষয়ে আরও সচেতনতা গড়তে এবার রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তের মতই বর্ধমানের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা স্পীড এবং বর্ধমান জেলা ট্রাফিক পুলিশের উদ্যোগে শুরু হল দক্ষ শিল্পীদের দিয়ে রাস্তার বুকে করোনা সচেতনতা প্রচারের কাজ।


বর্ধমান শহরের প্রধান প্রধান রাস্তার মোড়ে রাস্তার বুকের ওপর রং তুলি দিয়ে লেখা হচ্ছে নানান সামাজিক বার্তা।  বাড়িতে থাকুন, সুস্থ থাকুন / সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন / আতঙ্কিত নয়, সতর্ক থাকুন / লকডাউন মেনে চলুন - জাতীয় নানান বার্তা লেখা হচ্ছে। স্পিড সংস্থার সম্পাদক তাপস মাকড় জানিয়েছেন, এই কাজের জন্য বড়শুল গ্রামের শিল্পী সুমন্ত রানা, পবিত্র মন্ডল, সুজিত রানা ও মোহন মুর্মুকে তাঁরা নিয়ে এসেছেন। আপাতত কয়েকদিন ধরে তাঁরা বর্ধমান পুর এলাকার বিশেষ বিশেষ রাস্তার ওপর এই সচেতনতা প্রচারের লেখা লিখবেন।

তাপসবাবু জানিয়েছেন, রাজ্যের বেশ কিছু শহরে এই উদ্যোগ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে বর্ধমান শহরেও  তাঁরা এই ধরণের প্রচারকেই হাতিয়ার করে যাঁরা লকডাউন ভাঙছেন তাঁদের সতর্ক করতে চাইছেন। পাশাপাশি এদিন থেকেই জেলা ট্রাফিক পুলিশের উদ্যোগেও বর্ধমান শহরের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়ে রাস্তার ওপর বিশাল বিশাল করে লেখা হচ্ছে করোনার সতর্কীকরণ প্রচার।

0 Comments: