Headlines
Loading...
করোনা আতংকে কালনায় ভিনরাজ্য ফেরত তিন যুবককে গ্রামে থাকতে বাধা, ভর্তি হাসপাতালে

করোনা আতংকে কালনায় ভিনরাজ্য ফেরত তিন যুবককে গ্রামে থাকতে বাধা, ভর্তি হাসপাতালে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,কালনা: সারা বিশ্বের পাশাপাশি এই রাজ্যেও করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্ক জাঁকিয়ে বসেছে। যদিও রাজ্য সরকার ও স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে জনসাধারণের প্রতি নানান বার্তা দেওয়া হয়েছে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য। তবু অনেকক্ষেত্রেই এর ব্যতিক্রম ঘটে চলেছে। এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এই সন্দেহে ভিনরাজ্য থেকে ফেরা তিন যুবককে গ্রামে ঢুকতে বাধা দিলো গ্রামবাসীরা। 

ঘটনাটি ঘটেছে কালনার বেলকুলি নতুনপাড়া গ্রামে। খবর পেয়ে কালনা থানার পুলিশ গ্রামে গিয়ে ওই তিন যুবককে উদ্ধার করে কালনা সুপার স্পেশালিটি হসপিটালে ভর্তি করেছে। যদিও ওই তিন যুবকেরই শরীরে করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণই নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন হাসপাতাল সুপার কৃষ্ণচন্দ্র ঘড়াই। 

জানা গেছে, জীবিকার জন্য ব্যাঙ্গালোর ও কেরলে কাজ করতে গিয়েছিলেন কালনার বেলকুলি নতুন পাড়া গ্রামের তিন যুবক। তাদের নাম রাজা বিশ্বাস,দীপঙ্কর রায় ও রাজু সাঁই। সম্প্রতি দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে এই তিন যুবক কাজ ফেলে গত ন'দিন আগেই বাড়ি ফিরে আসেন। কিন্তু হঠাৎই গ্রামের মানুষ দাবি করতে থাকেন, এই তিনজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন। আর এই আতঙ্কে এই তিন যুবককে গ্রামে থাকতে নিষেধ করা হয়। এই নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয় গ্রামে। খবর পেয়ে কালনা থানার পুলিশ ওই তিন যুবককে গ্রাম থেকে নিয়ে এসে কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। 

হাসপাতাল সুপার কৃষ্ণচন্দ্র ঘড়াই জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে তিনজন যুবককে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের প্রাথমিক পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়েছে। চিকিৎসকদের বক্তব্য অনুযায়ী ওই তিন যুবকের কেউই করোনায় আক্রান্ত নয়। তবে সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য আগামী ২৪ঘন্টা তিন জনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। কৃষ্ণচন্দ্র ঘড়াই জানিয়েছেন, শুধুমাত্র আতঙ্ক ও আশংকা থেকেই এই ধরণের ঘটনা ঘটছে। সাধারণ মানুষকে আরও বেশি সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি সরকারি এবং স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশিকা মেনে চলারও আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

0 Comments: