728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 14 December 2019

দেশ জুড়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে আতংকের মাঝেই বর্ধমানের জৌগ্রামে আত্মঘাতি গৃহবধু, তীব্র চাঞ্চল্য


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাশ হওয়ার পর গোটা দেশ জুড়ে তীব্র উত্তেজনার মাঝেই এনআরসি আতংকে পূর্ব বর্ধমানের জৌগ্রামের তেলেগ্রামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছেন বলে পরিবার দাবী করেছেন। আর এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। মৃত গৃহবধুর নাম শিপ্রা শিকদার (৩৬)।

মৃতার ছেলে কমল শিকদার জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরেই তার জন্মের সার্টিফিকেট খুঁজে পাচ্ছিলেন না মা শিপ্রা শিকদার। এজন্য বারবার পঞ্চায়েত অফিস, বিডিও অফিস যাতায়াত করছিলেন। সম্প্রতি এনআরসি নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে যে হৈচৈ হচ্ছে তা থেকেই শিপ্রাদেবীর মধ্যে আতংক দেখা দেয়। তিনি বলতে থাকেন, তাঁর ছেলেকে তাঁর কাছ থেকে তাড়িয়ে দেবে, যেহেতু সে ছেলের জন্ম সার্টিফিকেট খুঁজে পাচ্ছিলেন না। আর তার জেরেই শনিবার ভোরে রান্নাঘরে গলায় দড়ির ফাঁসে তিনি আত্মঘাতি হন।

এনআরসি আতংকে শিপ্রাদেবীর আত্মহত্যার বিষয়ে একই কথা জানিয়েছেন তাঁর প্রতিবেশী মৃদুল কান্তি মণ্ডল। তিনি জানিয়েছেন, শিপ্রাদেবীর ছেলের জন্য আধার কার্ড করিয়েছেন। কিন্তু তার জন্ম সার্টিফিকেট তিনি খুঁজে পাচ্ছিলেন না। তা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই তিনি মনমরা হয়েছিলেন। তার ওপর এনআরসি আতংকও তাঁর মধ্যে ঢুকেছিল। তার জেরেই তিনি আত্মঘাতি হয়েছেন।

জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান জানিয়েছেন, তিনিও ওই পরিবার সূত্রে জেনেছেন এনআরসি আতংকেই ওই গৃহবধু আত্মঘাতি হয়েছেন। যদিও এব্যাপারে স্থানীয় বিজেপি নেতা তথা বিজেপির জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য সুধাময় ব্যানার্জ্জী জানিয়েছেন, এনআরসি আতংকে ওই গৃহবধু আত্মঘাতি হননি। আর্থিক অস্বচ্ছলতা নিয়ে পরিবারে সমস্যা চলছিল। মৃতার স্বামী সুভাষ শিকদার ভ্যান চালক। তাই আয় খুব কম। শিপ্রাদেবীর ছেলে কমল শিকদার বাবার সঙ্গেই কাজ করত। তাঁদের একটি মেয়েও রয়েছে। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে পারিবারিক বিবাদের জেরেই তিনি আত্মঘাতি হয়েছেন বলে সুধাময়বাবু দাবী করেছেন।
দেশ জুড়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে আতংকের মাঝেই বর্ধমানের জৌগ্রামে আত্মঘাতি গৃহবধু, তীব্র চাঞ্চল্য
  • Title : দেশ জুড়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে আতংকের মাঝেই বর্ধমানের জৌগ্রামে আত্মঘাতি গৃহবধু, তীব্র চাঞ্চল্য
  • Posted by :
  • Date : December 14, 2019
  • Labels :
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top