728x90 AdSpace

Latest News

Monday, 2 December 2019

জামালপুরে দামোদর থেকে চলছে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন, উদাসীন প্রশাসন


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: রবিবারই পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসী থানার বিক্রমপুর গ্রামে বালিখাদকে কেন্দ্র করে ব্যাপক বোমাবাজির ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এলাকা। এবার অবৈধ বালিখাদানকে ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ালো জামালপুরের পাঁচড়া অঞ্চলের সারাংপুর এলাকায়।

ইতিমধ্যেই অবৈধ বালিখাদান নিয়ে জেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছেন এলাকার বাসিন্দা থেকে পাঁচড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচিত সদস্যরাও। সারাংপুর গ্রামের পঞ্চায়েত সদস্য রামেশ্বর টুডু জানিয়েছেন, সম্প্রতি দামোদর নদের ধারে একটি বালির তথা পলিমাটির চর তৈরী হয়েছে। এরফলে নদীভাঙন অনেকটাই বন্ধ হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি বালি মাফিয়ারা সম্পূর্ণ অবৈধভাবে জেসিবি মেশিন দিয়ে ওই চর কেটে বিক্রি করতে শুরু করায় ফের ওই এলাকায় ভাঙনের আতংকে ভুগতে শুরু করেছেন গ্রামবাসীরা। 

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, সরকারী নিয়মানুযায়ী নদীর ধার থেকে ২০০ মিটার এবং বিডিআর রেলব্রীজ থেকে ২ দিকেই ৫০০ মিটার পর্যন্ত বালি তোলা নিষিদ্ধ। কিন্তু ওই এলাকাতেই ছাঁকনি মেশিন লাগিয়ে বেপরোয়াভাবে বালি তোলায় গোটা পরিস্থিতি বিপদজনক হয়ে উঠেছে। শুধু তাই নয়, রীতিমত ওই বালি তুলে বালি বোঝাই গাড়িগুলি বেপরোয়াভাবে রাস্তায় যাতায়াত করায় দুর্ঘটনার আশংকাও দেখা দিয়েছে। 

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, এই ঘটনা সম্পর্কে জামালপুরের বিএলআরও-র কাছে নালিশ জানানো হলেও কোনো সুরাহা হয়নি। তাই বাধ্য হয়েই তাঁরা জেলাশাসকের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন। কিন্তু তাতেও যদি কোনো কাজ না হয় তাহলে তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন। একই দাবী জানিয়েছেন, জামালপুর ব্লক কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি বুদ্ধদেব ঘোষ। 

তিনি জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই এব্যাপার দামোদর সেচ দপ্তরের সুপারিনটেনডেণ্টের কাছে তিনি লিখিতভাবে অভিযোগও দায়ের করেছেন। কিন্তু কোনো সুরাহা হয়নি। জানানো হয়েছে সেচ দপ্তরের জামালপুরের আধিকারিককেও। বুদ্ধদেববাবু জানিয়েছেন, প্রশাসনিক স্তরে জানিয়েও কোনো ফল না হওয়ায় বাধ্য হয়েই আদালতে মামলাও দায়ের করা হয়েছে।
                                                 ছবি - ইন্টারনেট
জামালপুরে দামোদর থেকে চলছে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন, উদাসীন প্রশাসন
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top