Headlines
Loading...
বর্ধমানে রাইস প্রো-টেক এক্সপো-এর উদ্বোধনে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক

বর্ধমানে রাইস প্রো-টেক এক্সপো-এর উদ্বোধনে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: শুক্রবার বর্ধমানের কল্পতরু মাঠে বেঙ্গল রাইস মিলস এ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে এবং বর্ধমান জেলা রাইস মিলস এ্যাসোসিয়েশনের  সহযোগিতায় ২২ নভেম্বর থেকে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত রাইস প্রো-টেক এক্সপো ২০১৯-এর উদ্বোধন করলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। 

এদিন এই এক্সপোর এই উদ্বোধন করতে গিয়ে রাইস মিলারদের ওটিআর নিয়ে যে দীর্ঘদিন অভিযোগ চলছে সেই বিষয়ে তিনি সরাসরি রাইস মিলারদের দিল্লীতে গিয়ে ধর্ণায় বসার নির্দেশ দেন। সরাসরি তিনি জানান, বাংলার রাইসমিলাররা ৬৮ শতাংশের জন্য দীর্ঘদিন দাবী জানিয়ে আসছেন। এব্যাপারে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে লাগাতার চিঠি লেখা হয়েছে দিল্লীর সরকারকে। কিন্তু ওরা তাতে কান দিচ্ছেন না। এমতবস্থায় একমাত্র রাস্তা দিল্লীতে গিয়ে ধর্ণায় বসা। তিনি এদিন রাইস মিলারদের  বলেন, আপনারা দিল্লীতে গিয়ে ধর্ণায় বসুন তার জন্য রাজ্য সরকার যা সাহায্য করার করবে। 


প্রসঙ্গত, সম্প্রতি পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসীতে একটি খ্যাতনামা রাইসমিলের দূষণ নিয়ে এলাকার মানুষ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদে অভিযোগ করায় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ ওই রাইসমিলকে বন্ধ করে দেবার নোটিশ সহ ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে। এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে সংগঠনের রাজ্য কার্যকরী সভাপতি আব্দুল মালেক এই প্রসঙ্গে জানান, অবিলম্বে সরকার এব্যাপারে ব্যবস্থা না নিলে আগামী দিনে রাইস মিল চালানো সম্ভব নয়। আর এরপরেই খাদ্যমন্ত্রী জানান, ইতিমধ্যেই এব্যাপারে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্রের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। কোনো মিলই বন্ধ হবে না। রাজ্য সরকার মিলগুলির পাশে আছে। এমনকি তিনি ওই মিলের কর্ণধারকে ডেকে তাঁকেও মঞ্চ থেকে জানিয়ে দেন কোনো অসুবিধা নেই। আপনি মিল চালিয়ে যান। তবে মিল থেকে নির্গত জলকে পরিশুদ্ধ করতেই হবে। এব্যাপারে ওই মিলকে ব্যবস্থা নিতে হবে। 

এদিন এই সম্মেলনে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার, জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ মেহেবুব মণ্ডল, জেলা খাদ্য নিয়ামক আবির কুমার বালি, প্রাক্তন কাউন্সিলার খোকন দাস সহ ওই আয়োজক সংগঠনের জেলা সম্পাদক সুব্রত মণ্ডল, কাঞ্চন সোম, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মনোজ পোখড়া, কেন্দ্রীয় সভাপতি সুশীল চৌধুরী প্রমুখরাও।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});