Headlines
Loading...
বর্ধমান জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন দায়িত্ব দেওয়া হল দেবু টুডুকে

বর্ধমান জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন দায়িত্ব দেওয়া হল দেবু টুডুকে


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: গত ২৬ আগষ্ট বর্ধমানে প্রশাসনিক সভায় যোগ দেবার আগে দলের নির্বাচিত পদাধিকারীদের নিয়ে কিছুক্ষণের জন্য বৈঠক করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়। দলের নেতাদের আরও বেশি করে যেমন জনসংযোগ করার ওপর জোড় দেবার নির্দেশ দিয়ে যান, তেমনি কয়েকজন নেতাকে সতর্কও করে যান। পাশাপাশি বর্ধমান জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় এব্যাপারে জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডুকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও দিয়ে যান বলে জানা গেছে। 

দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি দেবু টুডুকে নির্দেশ দেন তিনিই যেন এই কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন। একইসঙ্গে দেবু টুডুকে প্রশাসনিক (জেলা পরিষদের)কাজকর্ম সামলানোর পাশাপাশি বেশি করে দলের কাজ করার নির্দেশ দেন। কার্যত সরাসরি না হলেও তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথের ওপর থেকে চাপ কমিয়ে দিয়ে সেই চাপ দেবু টুডুর কাঁধেই অর্পণ করে দিয়ে যান মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর তারপরেই বর্ধমান শহরের তৃণমূলের কমিটি গঠনের তোড়জোড় শুরু হয়। সম্প্রতি জেলা পরিষদে এব্যাপারে একপ্রস্থ বৈঠকও হয়। বৈঠকের নির্যাস তথা একটি কমিটি তৈরী করে তা অনুমোদনের জন্য রাজ্য নেতৃত্বের কাছে পাঠিয়েও দেওয়া হয় বলে তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে। 

প্রায় ১০০জনের একটি কমিটির তালিকা পাঠানো হয়েছে। তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন পরে দলে গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়ে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে প্রাক্তন যুব জেলা সভাপতি জয়দেব মুখোপাধ্যায় ওরফে বলাইকে। তাঁকে যুব তৃণমূল কংগ্রেসের শহর সভাপতি করা হতে পারে বলে জানা গেছে। পাশাপাশি পুরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলার তথা তৃণমূলের প্রাক্তন শহর সভাপতি অরূপ দাসকেই ফের শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তার সঙ্গে রাখা হয়েছে খোকন দাসকে। তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে, রাজ্য নেতৃত্বের কাছে এই তালিকা পাঠানো হলেও এখনও সেখান থেকে কোনো ইতিবাচক সাড়া মেলেনি। 

যদিও এব্যাপারে অরূপ দাস জানিয়েছেন, ২০১৫ সালে তাঁকে শহর সভাপতি নির্বাচিত করার প্রায় ৬ মাসের মধ্যেই তিনি তিনি একটি কমিটি গঠন করে তা রাজ্যে পাঠিয়ে দেন। সেই তালিকায় স্বাক্ষরও করেন দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী। কিন্তু অদৃশ্য কারণে সেই তালিকা আজও তাঁর কাছে পাঠানো হয়নি। স্বাভাবিকভা্বেই এই তালিকারও কি ভবিষ্যত হবে তিনি বলতে পারছেন না। 

অন্যদিকে, জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডু জানিয়েছেন,দলনেত্রী তাঁকে সরকারী দায়িত্ব সামলানোর পাশাপাশি দলের জন্য বেশি করে সময় দেবার নির্দেশ দিয়েছেন। দল যাতে ভালভাবে পরিচালিত হয় সেজন্য তাঁকে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে, এরই মাঝে সোমবারই দেবু টুডুকে আলাদা করে পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কো-অর্ডিনেটর হিসাবে নিয়োগ করা হয়েছে। এই খবরে এদিন রীতিমত খুশির হাওয়া বয়েছে জেলা পরিষদে। দেবু টুডু জানিয়েছেন, দলনেত্রী তাঁকে নির্দেশ দিয়েছেন, দলের সমস্ত নির্বাচিত সদস্যদের মধ্যে সমন্বয় সাধন করে যাতে দল সঠিকভাবে পরিচালিত হয় তা দেখার জন্য। তিনি তা চেষ্টা করবেন।

0 Comments: