Headlines
Loading...
এবার বর্ধমান শহরে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, চাঞ্চল্য

এবার বর্ধমান শহরে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, চাঞ্চল্য


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই গণপিটুনি নিয়ে আইন আনতে চলেছেন। খোদ মুখ্যমন্ত্রী গণপিটুনি নিয়ে সরব হয়েছেন। কিন্তু তারপরেও জায়গায় জায়গায় গণপিটুনির ঘটনা ঘটেই চলেছে। সম্প্রতি পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোল এবং দুর্গাপারে একাধিক গণপিটুনির ঘটনাও ঘটেছে। আর এরপরেই সোমবার দুপুরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ালো বর্ধমান শহরের মেহেদিবাগান এলাকায়। 

ছেলেধরা সন্দেহে এলাকার মানুষ ৬জন কিশোর ও যুবককে তাড়া করলে ২জন ধরা পড়ে যায়। তাদের মারধর করার পর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ধৃতদের নাম আকাশ মাহাবত এবং শচীন মাহাবত। বাড়ি দিল্ল্রী কিরারী সুলেমান নগর ও প্রেম নগর এলাকায়। বাকিরা পালিয়ে যায়। সোমবার দুপুরে মেহেদিবাগান এলাকার বাসিন্দা রাজা প্রামাণিক জানিয়েছেন, এদিন দুপুরবেলায় এলাকার মানুষজন দেখতে পান ৬জনের একটি দল এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং বাচ্চা শিশুদের তারা বিভিন্নরকম পাথর দেখাচ্ছে।

রাজা প্রামাণিক জানিয়েছেন, ওই ৬ জনের পোশাক দেখেই তাঁদের সন্দেহ হয়। বিশেষত, সম্প্রতি ফেসবুকে ওই ধরণের পোশাক পরিহিতদের ছেলেধরা সন্দেহে সতর্কতা থাকার নানারকম পোষ্ট তাঁরা দেখেছেন। এদিন সেই ধরণের পোশাক পরে তারা ঘোরাঘুরি করতে থাকায় সন্দেহ আরও তীব্র হয়। বিশেষত, বাচ্চাদের পাথর দেখানো কেন হচ্ছে তাতেই সন্দেহ বাড়ে। অন্যদিকে, ধৃতরা এদিন জানিয়েছেন, তারা দিল্লী থেকে এসেছিল এখানে বিভিন্ন রকমের পাথর বেচার জন্য। কিন্তু তাদের ছেলেধরা সন্দেহে মারধর করা হয়েছে। অন্যদিকে, পুলিশ দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। বর্ধমান থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃতদের কাছ থেকে আধার কার্ড পাওয়া গেছে। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});