Headlines
Loading...
বর্ধমানে বিজেপির এসপি ঘেরাও কর্মসূচীতে পুলিশের লাঠিচার্জ, উত্তেজনা

বর্ধমানে বিজেপির এসপি ঘেরাও কর্মসূচীতে পুলিশের লাঠিচার্জ, উত্তেজনা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-এর ওপর আক্রমণ সহ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ওপর হামলা চালানোর প্রতিবাদে সোমবার গোটা রাজ্য জুড়ে এসপি অফিস ঘেরাও অভিযানে বর্ধমানে পুলিশ বেপরোয়া লাঠিচার্জ করে তাড়িয়ে দিল বিজেপি কর্মীদের। এসপি অফিসের ধারে কাছেও এদিন ঘেঁষতে পারলেন না বিজেপি কর্মীরা। লাঠির ঘায়ে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী।

 
গোটা রাজ্যের পাশাপাশি এদিন দুপুর প্রায় পৌনে দুটো নাগাদ বর্ধমান টাউন হল থেকে জমায়েত করে বিজেপির বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভার পর্যবেক্ষক দেবাশীষ সরকার এবং যুব মোর্চার প্রাক্তন জেলা সভাপতি শ্যামল রায়ের নেতৃত্বে বিজেপি কর্মীরা মিছিল করে কার্জন গেট হয়ে কাছারি রোডে দিকে এগোতে শুরু করে। কিন্তু আগে থেকেই এসপি অফিস যাওয়ার রাস্তায় বিশাল পুলিশ বাহিনী ব্যারিকেড তৈরী করে প্রস্তুত ছিলো। কার্জন গেটের পাড় করতেই বিজেপি কর্মীরা হৈ হৈ করে ছুটে আসেন ব্যারিকেডের দিকে। প্রায় মিনিট দশেক ধরে ব্যারিকেড ভেঙে ঢোকার চেষ্টা করতে থাকেন। কেউ কেউ ব্যারিকেডের ওপরেও উঠে পড়েন। কিছুক্ষণ এইভাবে চলার পর লাঠি উঁচিয়ে পুলিশ তাড়া করে বিজেপি কর্মীদের।শুরু হয় ব্যাপক লাঠিচার্জ।

 
মুহর্তের মধ্যে এলাকা ফাঁকা হয়ে গেলেও এর কিছুক্ষণ পরেই ফের বিজেপি কর্মীর মুখ্যমন্ত্রীর কুশপুতুল নিয়ে এসে আচমকাই তাতে আগুন ধরিয়ে শ্লোগান তোলে। ফের পুলিশ কর্মীরা তাদের ধাওয়া করে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়। বিজেপি কর্মীরা এরপর কার্জন গেটের সামনে জিটি রোডে শুয়ে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এই সময় বিজেপির দক্ষিণ বিধানসভার পর্যবেক্ষক দেবাশীষ সরকারকে লাঠিপেটা করে পুলিশ। তাকে জোর করে রাস্তা থেকে তুলে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলে। এই ঘটনায় নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়। আইনভাঙার দায়ে প্রায় জনা পঞ্চাশ বিজেপি কর্মীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে গেলে বিজেপি কর্মীরাও থানার সামনে গিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। পরে সকলকে ছেড়ে দেওয়া হয়। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে লাঠি চার্জের অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

 
এই ঘটনায় বিজেপি নেতা দেবাশীষ সরকার জানিয়েছেন, এদিন বিজেপির শান্তিপূর্ণ মিছিলের ওপর পুলিশ নির্বিচারে দফায় দফায় লাঠিচার্জ করেছে। পুলিশ আর তৃণমূলের মধ্যে কোনো ফারাক নেই। বিজেপি কর্মীদের ওপর এদিনের ঘটনার প্রতিবাদে তাঁরা আরও বৃহত্তর আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

0 Comments: