728x90 AdSpace

Latest News

Friday, 19 April 2019

৫বছরের শিশুকে খুনের অভিযোগে মৃতদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্ত


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ ৫ বছরের শিশুকে খুন করার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে। আর এই অভিযোগে গত মঙ্গলবার মারা যাওয়া ৫ বছরের শিশু জেসমিন খাতুনের মৃতদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠালো ভাতার থানার পুলিশ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। 

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত এক বছর ৪ মাস আগে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায় মৃত নাবালিকা জেসমিন খাতুনের মা ফতেমা বিবির সঙ্গে বাবা হানিফ সেখের। এরপর মেয়েকে নিয়ে ফতেমা বিবি ঝাড়ুল গ্রামেই বাপের বাড়িতে থাকতে শুরু করেন। ভাতার থানার বিজয়পুর গ্রামের বাসিন্দা হানিফ সেখ ভিন রাজ্যে কাজের জন্য থাকেন। 

মৃতের ঠাকুমা আসাতন বিবি অভিযোগ করেছেন, তাঁর নাতনি কে খুন করেছেন ফতেমা বিবি। এব্যাপারে তিনি সঠিক তদন্ত চেয়ে ভাতার থানায় অভিযোগ করেছেন। আর তাঁর অভিযোগ পেয়েই শুক্রবার সকালে মৃতদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্তের জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। যদিও এদিন ফতেমা বিবি জানিয়েছেন, গত মঙ্গলবার সকালে খেলতে গিয়ে জলে পড়ে যায় জেসমিন খাতুন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাঁকে গুসকরা স্বাস্থ্যকেন্দ্র নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় তার। মানবিক কারণেই মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়নি বলে জানিয়েছেন ফতেমা বিবি।
                                                                                                                                       ছবি - ফাইল
৫বছরের শিশুকে খুনের অভিযোগে মৃতদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্ত
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top