Headlines
Loading...
বর্ধমানে দেবের রোড শো,শাসক দলের প্রচারে ঝড়ো হাওয়ার সঞ্চার

বর্ধমানে দেবের রোড শো,শাসক দলের প্রচারে ঝড়ো হাওয়ার সঞ্চার


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ  সোমবারই পূর্ব বর্ধমান জেলায় খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ৩টি সভা এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের হাই ভোল্টেজ নির্বাচনী সভা হয়ে গিয়েছিল। আর মঙ্গলবার সেই ভোল্টেজের তাপমাত্রা কার্যত আরও বাড়িয়ে দিলো তৃণমূলের সাংসদ অভিনেতা দীপক অধিকারীর (দেব) রোড শো।

মঙ্গলবার বিকালে তিনি বর্ধমান শহরের নবাবহাট থেকে বর্ধমান ষ্টেশন পর্যন্ত রোড শো করেন। আর এদিন দেবকে দেখার জন্যই কাতারে কাতারে মানুষ ভিড় করেছিলেন দুপুর থেকেই জিটিরোড বরাবর। বিকাল প্রায় পৌনে চারটে নাগাদ বর্ধমানের একটি অভিজাত হোটেল থেকে এসে হুড খোলা গাড়িতে ওঠেন দেব। তাঁর সঙ্গে ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথ, বর্ধমান দুর্গাপুর আসনের প্রার্থী মমতাজ সংঘমিতা, বর্ধমান শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অরূপ দাস, সাধারণ সম্পাদক খোকন দাস প্রমুখরা।

এদিন দেবের রোড শো শুরুর সময় থেকেই ভীর সামলাতে রীতিমত হিমশিম খেতে হয়েছে পুলিশ কে। মিছিল যত এগিয়েছে ভীর ততই বাড়তে থাকে। কার্যত এদিন যত না তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচার মিছিল হল – তার থেকেও অভিনেতা দেবকে দেখার আগ্রহ ছিল মানুষের মধ্যে বেশি। যে আগ্রহে শিশু কোলে মা থেকে স্কুলের ছেলেমেয়েরাও সামিল হয়েছিল রাস্তায়। কাতারে কাতারে মানুষ নবাবহাট থেকে দেবের হুড খোলা গাড়ির পিছনে যাওয়ায় এদিন জি টি রোডের দুদিকই কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। যার ফলে বহু স্কুলের গাড়ি থেকে দুর্ঘটনায় গুরুতর জখমকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সও আটকে পড়ে। যদিও পুলিশ এবং তৃণমূল কর্মীরা স্কুল বাস এবং এ্যাম্বুলেন্সের যাতায়াতের ব্যবস্থা করে দেন।

এদিকে ষ্টেশন মোড় পর্যন্ত দেবের রোড শো আসার পর রীতিমত হুড়োহুড়ি শুরু হয়। চুড়ান্ত বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। জনতার হুড়োহুড়িতে বেশ কয়েকজন রাস্তায় পড়েও যান। অল্পের জন্য তাঁরা পদপিষ্ট হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পান। কার্যত জনতার চাপ দেখেই এদিন ষ্টেশন মোড় থেকে দেবকে পুলিশ রওনা করিয়ে দেন।

0 Comments: