Headlines
Loading...
ভোটের প্রচারে জোর কদমে তৃণমূল সিপিএম মাঠে নামলেও, এখনও ময়দানে নেই কংগ্রেস বিজেপি, হতাশ কর্মীরা

ভোটের প্রচারে জোর কদমে তৃণমূল সিপিএম মাঠে নামলেও, এখনও ময়দানে নেই কংগ্রেস বিজেপি, হতাশ কর্মীরা



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ  গোটা রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় জেলায় ভোটের রাজনৈতিক লড়াইয়ের আঁচ বাড়লেও এখনও সেভাবে বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা আসনের লড়াইয়ে উত্তাপ বাড়েনি। ইতিমধ্যেই এই কেন্দ্রে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে ফের লড়াইয়ের ময়দানে অবতীর্ণ হয়েছেন মমতাজ সংঘমিতা। সিপিএমের হয়ে লড়াইয়ে রয়েছেন আভাষ রায়চৌধুরী। কিন্তু ময়দানে দেখা মিলছে না বিজেপি বা কংগ্রেসকে। কারণ এখনও এই দুটি দল প্রার্থী ঘোষণা করতে পারেনি। বিজেপির ক্ষেত্রে বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা আসনে বিখ্যাত টলিউড – বলিউড ফ্যাসন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পলের পাশাপাশি আরএস এসের রাজ্য সহ সভাপতি বাঁকুড়া জেলার বাসিন্দা সুভাষ সরকারের নামও শোনা যাচ্ছে। কংগ্রেসের ক্ষেত্রে জেলা কংগ্রেসের সভাপতি আভাষ ভট্টাচার্য এবং সহ সভাপতি কাশীনাথ গাঙ্গুলীর নাম শোনা যাচ্ছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এব্যাপারে চুড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ঘোষণা না হওয়ায় কার্যত বিজেপি এবং কংগ্রেস দুই শিবিরই হতাশ।

 
ইতিমধ্যেই জেলা কংগ্রেস থেকে বহিরাগত প্রার্থী দেওয়া চলবে না বলে আওয়াজ তোলা হয়েছে। সংগত যুক্তি দিয়েই তাঁরা প্রদেশ এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বোঝানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন, এর আগেও বহিরাগতদের প্রার্থী করে মুখ পুড়েছে কংগ্রেসের। কেউই জিততে পারেননি। এমনকি বহিরাগতদের পরিচয় দিতেই সময় বয়ে যায়। তাই এবার জেলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জোড়ালোভাবে স্থানীয় দের মধ্যে থেকেই প্রার্থী করার দাবী তোলা হয়েছে। সিপিএমের সঙ্গে নির্বাচনী গাঁটছড়া ভেস্তে যেতেই কার্যত জেলা কংগ্রেস ভবন এখন কর্মীদের ভিড়ে উপচে পড়ছে। সকাল থেকেই তাঁরা কে প্রার্থী হচ্ছেন তা জানতে ভিড় জমাচ্ছেন। প্রত্যেকেই চাইছেন দ্রুত দল প্রার্থী ঘোষণা করুক। 

প্রার্থী পদের দাবীদার কাশীনাথ গাঙ্গুলী জানিয়েছেন, তিনি দাবীদার ঠিকই। কিন্তু জেলা কংগ্রেসের একেবারে নিচু তলার কর্মীরাই দফায় দফায় দলীয় কর্মী বৈঠকে জেলার কংগ্রেস নেতাদের মধ্যে থেকেই প্রার্থী করার দাবী তুলেছেন। সেক্ষেত্রে তাঁর নামও তালিকায় রয়েছে। দল বললেই ঝাঁপিয়ে পড়বেন। অপরদিকে, প্রায় একই ছবি বর্ধমান জেলা বিজেপির সদর দপ্তরেও। সেখানেও সকাল থেকে বিজেপি কর্মীরা প্রচারের জন্য উন্মুখ হয়ে বসে থাকলেও শনিবার সন্ধ্যে পর্যন্ত দলীয় প্রার্থীর নাম ঘোষণা না হওয়ায় গুটি গুটি পায়ে যে যার বাড়ির পথ ধরেছেন। বিজেপির যুব মোর্চার জেলা সভাপতি শ্যামল রায় জানিয়েছেন, তাঁরা প্রস্তুত। দল প্রার্থী ঘোষণা করলেই তাঁরা ঝাঁপিয়ে পড়বেন। ইতিমধ্যেই জেলা পার্টি অফিসে নিয়ে আসা হয়েছে হুড খোলা প্রচারের জিপও। স্বাভাবিক ভাবেই ভোট প্রচারের জন্য সব রসদ মজুদ, কিন্তু দেখা নেই দলীয় প্রার্থীর।

0 Comments: