728x90 AdSpace

Latest News

Thursday, 28 February 2019

প্রায় ৮দিন আগে ভাতারের নিখোঁজ চাষীর দেহ মিলল ঝাড়খণ্ডে, তীব্র উত্তেজনা



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ ধান কাটা মেশিনের ভাড়া বাবদ এক ব্যক্তির পাওনা টাকা নিতে আসার পর থেকে নিখোঁজ বর্ধমানের ভাতার থানার আলিনগর গ্রামের বাসিন্দা নুরাই মল্লিকের মৃতদেহ উদ্ধার হল ঝাড়খণ্ডে। এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে ভাতার থানার আলিনগর গ্রামে। মৃত নুরাই মল্লিকের স্ত্রী রূপসোনা বেগম অভিযোগ করেছেন, গত ২০ ফেব্রুয়ারী ঝাড়খণ্ডের সাহেবগঞ্জ জেলার রাধানগর থানা এলাকার বাসিন্দা সেখ সওকত আলি নামে এক ব্যক্তি আলিনগর গ্রামে আসেন। তিনি জানান, নুরাই মল্লিকের কাছ থেকে ধান কাটার মেশিন ভাড়া বাবদ তাঁর ১ লক্ষ টাকা পাওনা রয়েছে। রুপসোনা বেগম জানিয়েছেন, এরপরই নুরাই মল্লিক নিখোঁজ হয়ে যান। এব্যাপারে ভাতার থানায় লিখিত অভিযোগও দায়ের করা হয়। 

রূপসোনা বেগম জানিয়েছেন,বৃহস্পতিবার ঝাড়খণ্ডের এক আত্মীয়ের মাধ্যমে তাঁরা জানতে পারেন নুরাই মল্লিকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে স্থানীয় একটি জলাধারের ধার থেকে। এদিকে, এদিন মৃত্যুর খবর গ্রামে পৌঁছাতেই ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। বর্ধমান নতুনহাট বাদশাহী রাস্তা অবরোধ করেন স্থানীয়রা। তাঁদের অভিযোগ পুলিশের গাফিলতির কারণেই মৃত্যু হয়েছে নুরাই মল্লিকের। গত ২২ ফেব্রুয়ারি তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে শেখ শওকতের নামে লিখিত অভিযোগ জানান হয় পরিবারের পক্ষ থেকে। কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন রূপসোনা বেগম। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর স্বামীর মৃত্যুর কারণ পুলিশের গাফিলতি। এদিকে, প্রায় দীর্ঘ দু'ঘণ্টা রাস্তা অবরোধের পর পুলিশ আসে ঘটনাস্থলে। পুলিশকে দেখেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় মানুষজন। পরে ভাতার থানা থেকে আরো পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। অপরাধীদের শাস্তির আশ্বাস দেবার পর অবরোধ ওঠে। একইসঙ্গে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় মৃতদেহ ঝাড়খণ্ড থেকে নিয়ে আসার বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
প্রায় ৮দিন আগে ভাতারের নিখোঁজ চাষীর দেহ মিলল ঝাড়খণ্ডে, তীব্র উত্তেজনা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top