728x90 AdSpace

Latest News

Thursday, 24 January 2019

ছাত্রছাত্রীদের বায়োলজি ভীতি দূর করতে অভিনব উদ্যোগ বর্ধমানের প্রীতম স্যরের


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ  ছাত্র ছাত্রীদের বায়োলজি বিষয়ের প্রতি ভীতি দূর করে কিভাবে আরও বেশী নম্বর তোলা যায় এবং এই বিষয়ের প্রতি ছাত্র ছাত্রীদের যাতে আরও আকৃষ্ট করা যায় তার জন্য একটি বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করল বর্ধমান শহরের ডিজিটাল বায়োলজি নামে একটি সংস্থা। সংস্থার কর্ণধার প্রীতম সাঁই বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন, দুঃস্থ ও গরীব মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের বিনা বেতনে এই শিবিরে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রথম ধাপে শহরের বিভিন্ন স্কুল থেকে বাছাই করা ৫০ জন ছাত্রছাত্রীকে নিখরচায় এই সুবিধা দিতে চলেছেন তাঁরা। তবে এই ব্যাবস্থায় সাড়া পেলে পরবর্তীতে ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে। প্রীতম বাবু জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা লক্ষ্য করছেন অনেক ছাত্রছাত্রীর মধ্যে বায়োলজি নিয়ে অহেতুক একটি ভীতি কাজ করে। কিন্তু সহজ ভাবে বিষয়টিকে বুঝতে পারলে এবং আয়ত্ত্ব করতে পারলে, এই বায়োলজিতেই ভাল নম্বর পাওয়া সম্ভব। আর কিভাবে এগুলি সম্ভব সেইসব আলোচনা নিয়েই শিবিরে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ২০২০ সালে যাঁরা মাধ্যমিক দেবেন তাঁদের কাছে এই প্রশিক্ষণ শিবির কার্যকরী ভূমিকা নেবে বলেই এদিন আশা প্রকাশ করেছেন প্রীতম স্যর।

উল্লেখ্য, প্রীতম সাঁই এবছর থেকেই পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্বপ্ন উড়ান প্রকল্পে বায়োলজি পড়ানোর দায়িত্ব পেয়েছেন। চলতি বছরেই তাঁর কাছ থেকে ৯জন ছাত্রছাত্রী সর্বভারতীয় ডাক্তারী পরীক্ষায় রীতিমত কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। ভাতারের বাসিন্দা সম্পদ মাঝি নামে এক ছাত্র ইতিমধ্যেই নজর কেড়েছে গোটা জেলার। সম্পদের বাবা ও মা ক্ষেতমজুরের কাজ করেন। সেই ছাত্রই বর্তমানে বর্ধমান মেডিকেল কলেজে ডাক্তারী পড়ছেন। প্রীতমবাবু জানিয়েছেন, আগামী ২৬ জানুয়ারি এই ৯জন কৃতি ছাত্রছাত্রীকেই সম্বর্ধনা দেওয়া হবে। হাজির থাকবেন জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তবও।
ছাত্রছাত্রীদের বায়োলজি ভীতি দূর করতে অভিনব উদ্যোগ বর্ধমানের প্রীতম স্যরের
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

2 comments:

Top