728x90 AdSpace

Latest News

Wednesday, 9 January 2019

শহরে দূষণ নিয়ন্ত্রনে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহে সিএনজি


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,কলকাতাঃ গাড়ির জ্বালানির জন্য শহরে প্রাকৃতিক গ্যাস নিয়ে আসছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গেইল (পূর্বতন, গ্যাস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া)। ফলে, অচিরেই দিল্লি-আহমেদাবাদের মতো এই শহরেও চলবে সিএনজি-চালিত গাড়ি। পরিকল্পনা হল, সিএনজি স্টেশন গড়ে তোলা হবে বিভিন্ন পেট্রল পাম্পে। পাশাপাশি, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, নদিয়া ও দুই ২৪ পরগনায় প্রতিটি বাড়িতে পাইপের মাধ্যমে প্রাকৃতিক গ্যাস পৌঁছে দিতে বসানো হবে পাইপলাইন নেটওয়ার্কও। 


সম্প্রতি নিউটাউনে পেট্রোলিয়ম ও প্রাকৃতিক গ্যাস নিয়ামক পর্ষদ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে একথা জানান গেইল-এর চিফ জেনারেল ম্যানেজার এস বৈরাগী। এ দিন বৈরাগী জানান, এর জন্য বেঙ্গল গ্যাস লিমিটেড আগামী পাঁচ বছরে ৫,১৩৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে। তিনি বলেন, ‘চলতি বছরেই আমরা কলকাতা ও তার আশেপাশে অটো সিএনজি বিক্রি শুরু করার পরিকল্পনা করেছি। এজন্য তেল বিপণনকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে আমাদের আলোচনা করে ঠিক করতে হবে কোন কোন পেট্রল পাম্পে তারা সিএনজি স্টেশন বসাতে পারবে। জমি পাওয়ার সমস্যা থাকায় একেবারে নয়া গ্রিনফিল্ড সিএনজি স্টেশন গড়াটা অত্যন্ত অসুবিধাজনক। প্রাথমিকভাবে আমরা গ্যাস ট্যাঙ্কারে করে সিবিএম (ভূগর্ভস্থ কয়লা স্তরে নিমজ্জিত মিথেন) কলকাতায় এনে বিক্রি করব। জগদীশপুর-হলদিয়া পাইপলাইন তৈরি হয়ে গেলে সিএনজি বিক্রি করা হবে। ওই পাইপলাইন তৈরি শেষ হতে আগামী বছর অবধি সময় লাগবে।’ তিনি বলেন, কলকাতা ও তার আশেপাশে একটা বড় এলাকায় প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহের অনুমোদন রয়েছে গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই কর্পোরেশন-এর (জিসিজিএস)। সেই অনুমোদন বেঙ্গল গ্যাস লিমিটেড-কে দিতে পিএনজিআরবি-কে আর্জি জানাবে জিসিজিএস পরিচালন পর্ষদ। অনুমোদন পাওয়ার পরই পাইপলাইন নেটওয়ার্ক তৈরির কাজ শুরু করা হবে।’
শহরে দূষণ নিয়ন্ত্রনে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহে সিএনজি
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top