728x90 AdSpace

Latest News

Wednesday, 12 December 2018

মজুত ধান না সরানোয় শিক্ষককে মারধোরের অভিযোগ কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে, উত্তেজনা



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,আরামবাগঃ দোকানের পাশে প্রতিবেশীর ধানের গাদা। সরিয়ে নিতে বলার পরও ধান সরিয়ে না নেওয়ায় এক গৃহশিক্ষক ও তার বাবাকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠলো স্থানীও কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদে অভিযুক্ত কাউন্সিলরের পদত্যাগের দাবি তুলে রাস্তা অবরোধ করে দিলেন স্থানীয় মানুষ। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে আরামবাগের ৯ নং ওয়ার্ডের নওয়া পাড়া এলাকায়। প্রায় দেড় ঘন্টা অবরোধে আরামবাগ - তিরোল রাস্তায় বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাদের কে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখাতে থাকে স্থানীয়রা। পরে অভিযুক্ত কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে আরামবাগ পৌরসভার চেয়ারম্যান স্বপন নন্দী ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে  অবরোধ ওঠে।

জানা গেছে, ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিমাংশু মালিকের দোকানের পাশেই বাড়ি গৃহ শিক্ষক কল্যাণ সরকারের। অভিযোগ, কল্যাণ বাবু তাদের মাঠের ধান কাউন্সিলরের দোকানের পাশে রাখায় কয়েক দিন ধরে সরানোর চাপ দেওয়া হচ্ছিলো। কিন্তু কোন শ্রমিক না পাওয়ায় মজুত ধান সরানো যায়নি । সেই করনে এদিন হঠাৎ ওই গৃহশিক্ষকের বাড়িতে চড়াও হয় কাউন্সিলর। তার পর বেধড়ক মারধর করে কল্যাণ বাবুকে।অভিযোগ, ছাড়াতে গেলে তার বাবাকেও মারধর করা হয়। ঘটনায় দুজনই আহত হন। তাদের আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই খবর স্থানীয়দের কানে যেতেই উত্তেজিত হয়ে পড়ে তারা। তার পরই রাস্তা অবরোধ করা হয়।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এই ঘটনায় কাউন্সিলারের নামে কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। কাউন্সিলরের দাদা শুভ্রাংশু মালিক এবং দুই ভাইপো অনির্বাণ মালিক ও দীপ্তিমান মালিকের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে আরামবাগ থানায়। যদিও মারধরের ঘটনার বিষয় একপ্রকার স্বীকার করেছেন অভিযুক্ত কাউন্সিলর হিমাংশু মালিক। এই ঘটনার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। 







মজুত ধান না সরানোয় শিক্ষককে মারধোরের অভিযোগ কাউন্সিলারের বিরুদ্ধে, উত্তেজনা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top