728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 10 November 2018

মাও হামলার নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি-মাও আঁতাত - শম্পা ধাড়া


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ ছত্রিশগড়ে মাও হামলায় নিহত সি আই এস এফ জওয়ান দীনাঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুর ঘটনায় গোটা বিষয়টি নিয়ে শুক্রবারই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন মৃতের স্ত্রী মিতা মুখোপাধ্যায়। শুক্রবার দুপুরে বর্ধমানের ৩নং ইছলাবাদের ঘোষপাড়ার মুখার্জী বাড়িতে নিহত দীনাঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের দেহ আসার পর মিতাদেবী জানিয়েছিলেন, মাও সমস্যা একটা ছোট জায়গার সমস্যা। সরকার যখন এত কিছু পারে। স্বাভাবিকভাবে এই সমস্যারও সমাধান করতে পারে। কিন্তু সমাধান না করে এই সমস্যাকে জিইয়ে রাখা হয়েছে। শুধু এখানেই থামেননি মিতাদেবী। জানিয়েছেন, যেভাবে তাঁর স্বামীর মৃত্যু হয়েছে তারপর আর তিনি তাঁর ছেলেকে সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়াতে চাননা। বস্তুত, মাও হামলায় নিজের দেশেই সেনা জওয়ানদের এভাবে বেঘোরে মৃত্যুর ঘটনায় ক্রমশই সরব হচ্ছেন সেনা পরিবারের লোকজন।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়ার দাদা পার্থ ধাড়া বর্তমানে দার্জিলিং-এ ইন্দো তিব্বত বর্ডার ফোর্সে কর্মরত রয়েছেন। শুক্রবার দীনাঙ্করবাবুর মৃতদেহ বর্ধমানের বাড়িতে আসার পর তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছিলেন শম্পা ধাড়াও। দীনাঙ্করবাবুর কফিনের ওপর মালা দিতে গিয়ে তাঁর চোখ ভেসে গিয়েছিল জলে। শনিবার তিনি জানিয়েছেন, মাওদের সঙ্গে বিজেপির একটা গোপন আঁতাত তৈরী হয়েছে। তাই এই সমস্যাকে জিইয়ে রাখা হয়েছে। শম্পা ধাড়া জানিয়েছেন, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর মাওবাদী সমস্যাকে রাজ্য থেকে দূর করে দিয়েছেন। গোটা রাজ্যে আর মাওবাদীদের দৌরাত্ম নেই। সেখানে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এত ক্ষমতা থাকলেও কেন তাঁরা উদ্যোগী হচ্ছেন না? উল্টে যে সমস্ত রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় রয়েছে সেই সমস্ত রাজ্যেই মাওবাদী কার্যকলাপ রয়েছে। বিজেপির সঙ্গে মাওবাদীদের গোপন আঁতাত রয়েছে বলেও তিনি এদিন অভিযোগ করেছেন।

একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, দেশের সেনাবাহিনী দেশের মানুষকে সুরক্ষা দিচ্ছেন। দেশের মানুষেরবিপদে আপদে সেনাবাহিনী ঝাঁপিয়ে পড়ছে। আর সেই সেনাবাহিনীর জওয়ানরা দেশের মধ্যেই মাও হামলায় প্রাণ হারাচ্ছেন। কেন সেনাবাহিনীর জওয়ানদের নিরাপত্তার বিষয়টি দেখা হবে না - প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। এব্যাপারে কেন্দ্র সরকারের কাছেও সেনা জওয়ানদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, শনিবার সকালে মৃত জওয়ানের পরিবারকে সান্তনা দিতে মুখোপাধ্যায় বাড়িতে আসেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। এদিন তিনি গোটা পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস ছাড়াও পরিবারের জন্য কি করা যায় সে ব্যাপারে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবেন বলে জানিয়েছেন। মাও হামলায় জওয়ানদের মৃত্যু সম্পর্কে তাঁকে এদিন প্রশ্ন করা হলে তিনিও অভিযোগ করেছেন, মাও সমস্যা মেটানোর জন্য কেন্দ্র সরকারকেই আরো উদ্যোগ নিতে হবে। কারণ এই সমস্যা কেন্দ্রের সমস্যা।তিনি জানিয়েছেন, কেন্দ্র সরকার ইচ্ছা করলেই এই সমস্যা সমাধান করতে পারেন। তাই তাদেরই উদ্যোগী হতে হবে। এক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের কোনো ভূমিকা নেই।
মাও হামলার নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি-মাও আঁতাত - শম্পা ধাড়া
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top