728x90 AdSpace

Latest News

Monday, 26 November 2018

আউশগ্রামের দলীয় সভা থেকে দলেরই অঞ্চল সভাপতিকে গ্রেফতারের নির্দেশ অনুব্রতর


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক, আউশগ্রামঃ "বাংলা আবাস যোজনায় নেতা থেকে বিধায়ক কেউ টাকা খেলেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আউশগ্রামের এক অঞ্চল সভাপতি গরীব মানুষের জন্য বরাদ্দ করা বাড়ি তৈরীর জন্য টাকা খেয়েছে বলে খবর পেয়েছি। পুলিশকে বলেছি তাকে গ্রেপ্তার করতে।" সোমবার বর্ধমানের আউশগ্রামের এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এভাবেই দলীয় নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারী দিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা আউশগ্রামের পর্যবেক্ষক অনুব্রত মণ্ডল। একইসঙ্গে এদিন বিজেপিকে ঠেকাতে 'পাঁচন' দাওয়াই দেওয়ার জন্যও নির্দেশ দিয়ে গেলেন দলীয় কর্মী-নেতাদের। জানিয়ে গেলেন পাঁচন দিয়ে পিটিয়ে সোজা করে দিতে। এরই পাশাপাশি বিজেপির রথযাত্রার পাল্টা খোল-খঞ্জনী যাত্রার কথাও এদিন ঘোষণা করলেন অনুব্রতবাবু।

তিনি এদিন বলেন, আগামী ১৪ ডিসেম্বর বোলপুর থেকে ৪ হাজার খোল আর ৮ হাজার খঞ্জনী নিয়ে শহর জুড়ে মিছিল হবে। মিছিল হবে আউশগ্রামের ৫টি অঞ্চলেও। এদিন সিপিএমকেও রেয়াত করেননি অনুব্রত মণ্ডল। বলেন, ৩৪ বছরে সিপিএম মানুষের জন্য কোনো উন্নয়ন করেনি। কেবলই ঠকিয়েছে। আউশগ্রামের মানুষ গত ৩৪ বছরে কোনো উন্নয়ন দেখেনি। দেখলো এই ৭বছরে। এরপরই তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, মমতা ব্যানার্জ্জী সমাজের সর্বস্তরের মানুষের জন্য উন্নয়ন করছে। উন্নয়ন রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে। যে দিকে চোখ যাবে সেদিকেই উন্নয়ন। আর গরীব মানুষের বাড়ির টাকা নেতারা মারবেন এটা হবে না।

তিনি এদিন বলেন, একজন অঞ্চল সভাপতি টাকা খেয়েছেন বলে শুনেছি। সব নেতাদের সম্পর্কেই রিপোর্ট নিয়েছি। ওই অঞ্চল সভাপতিকে গ্রেপ্তার করতে বলেছি পুলিশকে। একটা তালিকা তৈরী করেছি। পুরসভার কিছু নেতাও টাকা খেয়েছে। রাস্তা হয়ে যাবার পরও রাস্তা তৈরীর জন্য টেণ্ডার ডাকা হয়েছে। সাবধান করেছি। পুর নির্বাচনের আগেই ওই তালিকা প্রকাশ করব। নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি এদিন বলে্ন, লজ্জা করেনা আপনাদের – মমতা ব‌্যানাজ্জী গরীব মানুষের জন্য বাড়ি করতে টাকা দিচ্ছেন আর তার থেকে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা খাচ্ছেন ? সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কোথাও কেউ টাকা চাইলেই অভিযোগ করুন। ভয় পাবেন না। দরকার হলে তাঁকে জানানোরও নির্দেশ দিয়েছেন অনুব্রতবাবু।

এদিন বিজেপিকেও স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে অনুব্রতবাবু একহাত নিয়েছেন। তিনি এদিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী মিথ্যাবাদী। আচ্ছে দিন আসেনি। মানুষ কিছুই পায়নি। ওরা বাড়াবাড়ি করছে। লাফালাফি করছে। কেন্দ্র সরকারের ২১টি প্রকল্প বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এই রাজ্যে। অসম থেকে বাঙালি খেদাও-এর উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটা কি ওঁর বাপের জায়গা। আগামী লোকসভা নির্বাচনে বীরভূম জেলার ২টি লোকসভা আসনেই ৩ থেকে ৪ লাখ ভোটের ব্যবধানে তিনি জিতবেন বলে এদিন ঘোষণা করেন। এদিন দলীয় ব্লক সভাপতিদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, প্রতি মাসে ২টি করে সভা করতে হবে। নাহলে তাদের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে।
আউশগ্রামের দলীয় সভা থেকে দলেরই অঞ্চল সভাপতিকে গ্রেফতারের নির্দেশ অনুব্রতর
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top