728x90 AdSpace

Latest News

Friday, 13 July 2018

বর্ধমানে নতুন পিতলের রথকে ঘিরে ব্যাপক উন্মাদনা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমানঃ রাত পোহালেই মহাপ্রভু জগন্নাথ এর রথযাত্রা উৎসব। গোটা দেশ জুড়ে অগুনিত ভক্ত রথের দড়িতে টান দিয়ে পুন্যের আশায় মুখিয়ে রয়েছেন। পিছিয়ে নেই ঐতিহাসিক শহর বর্ধমানও। রাজ আমলের প্রচলিত 'জনগনের রথ' কে এবছর নতুন সাজে সজ্জিত করে শুক্রবার বর্ধমান শহরের টাউন হল থেকে মহা ধুমধাম সহকারে কয়েক হাজার ভক্ত শোভাযাত্রার মাধ্যমে নিয়ে গেলেন বর্ধমানের আদি শহর কাঞ্চননগর রথতলায়। শনিবার সেখানেই এই রথকে আনুষ্ঠানিকভাবে টানা হবে।

প্রভাত প্রগতি সঙ্ঘ এবং রথতলা রথযাত্রা পরিচালন সমিতির সভাপতি তথা বর্ধমান পুরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল খোকন দাস জানিয়েছেন, দীর্ঘ কয়েকদশক পর বর্ধমানবাসীর জন্য উৎসর্গ করা হল নতুন পিতলের রথ। প্রায় ১ বছর ধরে ১২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এই পিতলের রথ তৈরী হয়েছে নবদ্বীপে। ২৩ ফুট উচ্চতা এবং ১৩ ফুট চওড়া এই রথের শুভ উদ্বোধন করলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। হাজির ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবু টুডু, জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব, পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জি, বিধায়ক রবিরঞ্জন চট্টোপাধ্যায়, প্রাক্তন বিধায়ক উজ্জ্বল প্রামানিক, উত্তম সেনগুপ্ত প্রমুখ।


জানা যায়, ১৭৩০ সাল নাগাদ কীর্তিচাঁদ সাধারণ নাগরিকদের আনন্দ দেবার জন্য কাঞ্চননগরে রথ যাত্রার প্রচলন করেছিলেন। তাঁর আরও পরে কীর্তিচাঁদের পুত্র রাজা চিত্রসেন রায় কেবলমাত্র রাজ পরিবারের সদস্যদের জন্য চালু করেছিলেন রথযাত্রার। জনগনের জন্য তৈরি সম্পূর্ণ কাঠের সেই রথ বর্তমানে আর নেই। পরিবর্তে এলাকার মানুষের আগ্রহে কয়েক বছর আগে তার বদলে সেখানে তৈরী হয়েছে লোহার রথ। আর এবছর থেকে যুক্ত হল নতুন এই পিতলের রথ। নতুন পিতলের এই রথকে ঘিরে ইতিমধ্যেই শহরবাসীর মধ্যে তৈরি হয়েছে ব্যাপক উন্মাদনা। 

খোকন দাস জানিয়েছেন, রথযাত্রা উপলক্ষে প্রতিবছরের মত এবছরও ৭ দিন ধরে রথতলার মাঠে বসবে মেলা। থাকবে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। 
বর্ধমানে নতুন পিতলের রথকে ঘিরে ব্যাপক উন্মাদনা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top