728x90 AdSpace

Latest News

Sunday, 29 July 2018

আগামী পূজোয় বর্ধমান শহরেও দুর্গা কার্নিভ্যাল


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ রাজ্যের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের নির্দেশে বর্ধমান শহরের ক্লাব ও সংস্থাদের একসূত্রে বাঁধার কাজ শুরু হল। বিশেষত, ইতিমধ্যেই যে সমস্ত ক্লাব বা সংস্থা মুখ্যমন্ত্রীর মাধ্যমে আর্থিক সাহায্য পেয়েছে সেই সমস্ত রেজিষ্ট্রিকৃত ক্লাবগুলিকে নিয়ে রবিবার বর্ধমান টাউন হলে আয়োজিত হল একটি সমন্বয় সভা। বর্ধমান পুরসভার কাউন্সিলার খোকন দাসের নেতৃত্বে এই সমন্বয় সভায় এদিন বর্ধমান শহরের প্রায় ২০০টি ক্লাব ও সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূল নেতা ইফতিকার আহমেদ ওরফে পাপ্পু বলেন, অনেক ক্লাব ও সংস্থাই মুখ্যমন্ত্রীর এই আর্থিক সাহায্য পেলেও তাঁরা সঠিক খাতে তা খরচ করেননি। এব্যাপার নজরদারীর প্রয়োজন। একইসঙ্গে খাতায় কলমে অনেক ক্লাব বা সংস্থা থাকলেও বাস্তবে তাদের কোনো অস্তিত্ব নেই বলেও এদিন তিনি অভিযোগ তুলে সেগুলিকে চিহ্নিত করার দাবী জানান। অন্যান্যদের মধ্যে এদিন বক্তব্য রাখেন বর্ধমান লায়ন্স ক্লাবের সম্পাদক সুব্রত মণ্ডল,সিনিয়র সিটিজেন ক্লাবের সভাপতি প্রবীর ভট্টাচার্য, কাউন্সিলার সুশান্ত প্রামাণিক, সাহাবুদ্দিন খান সহ বর্ধমান শহরের বিভিন্ন ক্লাবের প্রতিনিধিরাও।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে খোকন দাস বলেন, মুখ্যমন্ত্রী ক্লাবগুলির পুনরুজ্জীবনের জন্য প্রতিটি ক্লাবকে মোট ৫ লক্ষ টাকা করে দিচ্ছেন। খেলাধূলা তথা সামাজিক কাজে ক্লাবগুলিকে এগিয়ে আসার জন্য এই আর্থিক সাহায্য দিচ্ছেন। কিন্তু অনেক ক্লাবই সেই সৌজন্যটুকুও একটি ব্যানারের মাধ্যমে প্রকাশ করছেন না। তিনি বলেন, ক্লাব মানে কেবল তাস খেলার বা আড্ডা মারার জায়গা নয়। এলাকার উন্নয়নের কাজেও তাদের এগিয়ে আসার ডাক দেন তিনি। উল্লেখ্য, কলকাতার রাজপথে দুর্গাপূজোর কার্নিভ্যালের ঢঙে এবছর বর্ধমান শহরের বড়বড় পুজো উদ্যোক্তাদের নিয়ে নবাবহাট থেকে উল্লাস পর্যন্ত কার্নিভ্যালের দাবী ওঠে এদিনের সভায়। খোকন দাস জানান, এই কার্নিভ্যাল করার জন্য কয়েকবছর ধরেই প্রশাসনিক ভাবে চেষ্টা চলছে। কিন্তু হয়নি। গতবছরই বর্ধমানের কাঞ্চননগরে ১৪টি ক্লাবকে নিয়ে কার্নিভ্যাল করা হয়। এবার শহর জুড়ে এই কার্নিভ্যাল করা হবে।
আগামী পূজোয় বর্ধমান শহরেও দুর্গা কার্নিভ্যাল
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top