728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 16 June 2018

রায়নায় গোষ্ঠী সংঘর্ষে বোমাবাজি, বোমার আঘাতে উড়ে গেল যুবকের মাথা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,রায়নাঃ পূর্ব বর্ধমান জেলার রায়না থানার জোৎসাদি ছোট কয়রাপুর গ্রামে      শনিবার ঈদের অনুষ্ঠান চলাকালীন দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে বোমার আঘাতে এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় গতকাল রাত থেকে রবিবার সকাল পর্যন্ত ১৫জন কে ঘটনায় যুক্ত সন্দেহে আটক করল পুলিশ। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,শনিবার  রাত ৮টা ২০ নাগাদ গ্রামে ঈদের অনুষ্ঠান চলাকালীন জোরে মোটর সাইকেল চালানোকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়। জানা গেছে, স্থানীয় লালন মল্লিক ওরফে আবেল গোষ্ঠীর লোকজনের সঙ্গে সেখ সেলিম খান গোষ্ঠীর ছেলেদের বচসা বাঁধে। আর এরপরই দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় বোমাবাজি। স্থানীয় সূত্রে খবর, চারটি বোম মারা হয়। এই সময় আনিসুর  রহমান মল্লিক (২৬) নামে  স্থানীয় এক যুবকের মাথায় সরাসরি একটি বোম গিয়ে ফেটে যায়। ঘটনাস্থলেই  মৃত্যু হয় ওই যুবকের। ঘটনার পরেই তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে গোটা গ্রাম সহ রায়না জুড়ে। বন্ধ হয়ে যায় আশপাশের সমস্ত ইদের অনুষ্ঠান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রায়না থানার পুলিশ। কিন্তু  এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা থাকায় বর্ধমান থেকে  বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে এসে গ্রামে ঢোকে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় মৃতদেহ। এদিকে এই ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্তরা গা ঢাকা দেয় বলে অভিযোগ। এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা থাকায় শনিবার রাত থেকেই পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এদিন ইদের নামাজ শেষ হওয়ার পর স্থানীয় তৃণমূল পার্টি অফিসে এলাকায় জোরে বাইক চালানোকে কেন্দ্র করে যাতে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, তার জন্য মিটিং এ বসেছিলেন স্থানীয় নেতৃত্ব। কিন্তু সেই সময়ই ছোট কয়রাপুর গ্রামে বোমাবাজির ঘটনা ঘটে বলে গ্রামবাসীদের একাংশ জানিয়েছেন।

 যদিও এই ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় রায়না বিধানসভার বিধায়ক নেপাল ঘরুই জানিয়েছেন, এটা সম্পূর্ণ দুষ্কৃতিদের কাজ। এর মধ্যে কোন গোষ্ঠীদন্দের ব্যাপার নেই। গ্রামের কিছু দুষ্কৃতি এলাকার শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার পরিকল্পনা নিয়েই এই জঘন্য কাজ করেছে। একটি নিরীহ,নিরপরাধ ছেলে বোমার আঘাতে মারা গেছে। পুলিশ প্রশাসন অপরাধীদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের মহকুমা পুলিশ আধিকারিক শৌভনিক মুখার্জী জানিয়েছেন, শনিবার রায়না থানার জোৎসাদি ছোট কয়রাপুর গ্রামে বোমাবাজি এবং এক বাক্তির মৃত্যুর ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রনে। 
রায়নায় গোষ্ঠী সংঘর্ষে বোমাবাজি, বোমার আঘাতে উড়ে গেল যুবকের মাথা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top