728x90 AdSpace

Latest News

Monday, 11 June 2018

ট্রেনে বিদেশিনীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার কেন্দ্রীয় সরকারের এক কর্মী


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ ট্রেনের মধ্যে ফ্রান্সের এক যুবতী পর্যটকের শ্লীলতাহানির অভিযোগে বর্ধমান ষ্টেশনের জিআরপি গ্রেপ্তার করল এক যুবককে। ধৃতের নাম আরশাদ হোসেন। বাড়ি ঝাড়খণ্ডের পাকুড় জেলার মাধপুর এলাকায়। আরশাদ মধ্যপ্রদেশের জব্বলপুরে কর্মরত কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মী
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রবিবার ডাউন জামালপুর – হাওড়া ট্রেনের এস-৮ কামরায় আসছিলেন ওই বিদেশিনী। তাঁর সঙ্গে এক পুরুষ সঙ্গীও ছিল। ওই ট্রেনেই পাকুড় ষ্টেশনে আসছিলেন আরশাদ হোসেন। ওই বিদেশীনি জানিয়েছেন, তাঁদের রিজার্ভেশন না থাকায় তাঁরা কামরায় গেটের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। ট্রেনটি পাকুড় ষ্টেশনে ঢোকার আগে আরশাদ পাকুড় ষ্টেশনে নামার জন্য ব্যাগপত্র নিয়ে গেটের কাছে আসেন। সেই সময় বিদেশীনি তাঁকে আরশাদের সিটটি ফাঁকা আছে কিনা জানতে চান। তাঁর অভিযোগ, এই সময় আরশাদ তাঁকে তাঁর সিটটি দেখিয়ে দেবার নাম করে পিছন থেকে তাঁর শ্লীলতাহানি করেন। তিনি চিৎকার করলে অন্য যাত্রীরা ছুটে আসেন। খবর দেওয়া হয় রেলের আরপিএফকে। এরপর আরশাদকে নিয়ে আসা হয় বর্ধমান ষ্টেশনে। সেখানেই বিদেশীনি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

সোমবার ধৃতকে বর্ধমান আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে জেল হেফাজতে পাঠিয়ে ফের বৃহস্পতিবার আদালতে পেশ করার নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে বিদেশীনির গোপন জবানবন্দিও নেওয়া হয়। বিদেশীনি জানিয়েছেন, এই ধরণের আচরণ অত্যন্ত লজ্জাজনক। প্রয়োজনে তিনি ফ্রান্স থেকেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলায় সাক্ষ্য দেবেন।

এদিন ধৃতের আইনজীবী আরশাদ হোসেনের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে বলে সওয়াল করে তার জামিনের আবেদন করেন। সরকারী আইনজীবী জানান, এই ঘটনায় অভিযুক্তের জামিন হলে বিদেশে এদেশের নাম কলঙ্কিত হবে। তাই তিনি জামিনের বিরোধিতা করেন। দুপক্ষের সওয়াল শুনে বিচারক ধৃতকে জেল হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
ট্রেনে বিদেশিনীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার কেন্দ্রীয় সরকারের এক কর্মী
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top