728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 7 April 2018

হাতে লাঠি,বন্দুক দেখে থমকে গেল ছোট্ট দুটো পা, তারপর?


ফোকাস বেঙ্গল নিউজ ডেস্কঃ সবে স্কুল ছুটি হয়েছে। গুটি গুটি পায়ে রোজকার মত শনিবারও বাড়ি ফেরার জন্য বর্ধমান শহরের হরিজন স্কুলের ক্লাস ফাইভের মেয়েটি বেরিয়ে পড়েছিল মির্জাপুরে নিজের বাড়ি ফেরার জন্য। কার্জন গেটের দিকে কিছুটা আসতেই থমকে গেল তার ছোট্ট পা গুলো। ভয়ে কেঁপে উঠল বুক। এরকম তো কোনোদিন দেখেনি সে। চারদিকে লাঠি,বন্দুক হাতে পুলিশ কাকুদের দাপাদাপি। আরও কত অজানা মুখ। অন্যদিনগুলোতে এমন তো হয়না! চোখে মুখে তখন আতঙ্ক গ্রাস করেছে ছোট্ট মেয়েটির। ওর মত আর কাউকেও তো রাস্তায় দেখতে পাচ্ছে না সে। কিভাবে বাড়ি ফিরবে এই ভাবনায় দাঁড়িয়ে পড়ল পুলিশ কাকুদের কাছে। ভীত সন্ত্রস্ত ছোট্ট স্কুল ছাত্রীটিকে দেখে এগিয়ে এলেন মনোনয়ন জমা দেওয়াকে ঘিরে কর্তব্যরত কয়েকজন পুলিশ। তারাই জানতে চাইলেন,একা কেন সে। কোথায় যাবে,বাড়ি কোথায় ইত্যাদি। কিছুটা হলেও বুকে বল পেল ছাত্রীটি। এরপর সব কিছু জেনে বর্ধমান পুলিশের সহযোগিতায় মির্জাপুর গামী বাসে চাপিয়ে দেওয়া হয় তাকে। চালক ও কন্ডাক্টারকে সঠিক জায়গায় মেয়েটিকে নামিয়ে দেওয়ার জন্যও বলে দেওয়া হল। 

উল্লেখ্য,পঞ্চায়েতের মনোনয়ন জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে শনিবারই বর্ধমান কোর্ট চত্বরে  সিপিএম ও তৃণমূলের সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। আর তার জেরেই এদিন প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয় এলাকা জুড়ে। শনিবার স্কুল ছুটি হওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই জেলাপরিষদের সামনে দিয়ে কার্জন গেটের দিকে যাবার রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছিল সাধারণ মানুষের যাতায়াত ও যান চলাচলের। আর এই সময় হরিজন স্কুলের ছাত্রীটি প্রতিদিনের মতোই চলে আসে এই রাস্তায়। প্রথমে পারিপার্শিক পরিস্থিতি দেখে ঘাবড়ে গেলেও পরে পুলিশ কর্মীরাই সাহস জুগিয়ে বাড়ির পথে রওনা করে দেয় ছোট্ট ছাত্রীটিকে।
                                                                                                             ছবি - সুরজ প্রসাদ 
হাতে লাঠি,বন্দুক দেখে থমকে গেল ছোট্ট দুটো পা, তারপর?
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top