728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 28 April 2018

পঞ্চায়েত নির্বাচনে বর্ধমান জেলায় প্রথম বলি, দুষ্কৃতিদের ছোঁড়া বোমায় নিহত তৃণমূলের সমর্থক

ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,ভাতার ও বর্ধমান:পঞ্চায়েত ভোট ঘিরে উত্তেজনার পারদ আরও এক ধাপ চড়ল।শনিবার পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতারে দুষ্কৃতিদের ছোঁড়া বোমায় নিহত হলেন এক তৃণমূল সমর্থক। মৃতের নাম রমজান মোল্লা ওরফে ভকত মোল্লা (৫৮)। বাড়ি ভাতার থানার ভূমশোর খাসপাড়ায়। কার্যত, পূর্ব বর্ধমান জেলায় চলতি পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এটাই রাজনৈতিক প্রথম বলি। এই ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে ভাতার অঞ্চল জুড়ে। 

নিহত রমজান মোল্লার ভাইপো কবিলাল মোল্লা এবং স্থানীয় তৃণমল কংগ্রেসের সমর্থক হারুন সেখ জানিয়েছেন, শনিবার সকালে খাসপাড়া থেকে পশ্চিমপাড়ায় রেশন তুলতে গিয়েছিল রমজান। রেশন তুলে সাইকেলে চেপে বাড়ি ফেরার সময় মসজিদতলার কাছে রমজান মোল্লাকে লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে দুষ্কৃতীরা। বোমা গিয়ে লাগে রমজানের গলায়। বোমার আঘাতে উড়ে যায় মুখমন্ডলের একটি অংশ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভাতার গ্রাম পঞ্চায়েতের আসনে তৃণমূলের দুই প্রার্থীর মনোনয়নকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরেই উত্তেজনা তৈরী হয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হিসাবে শান্তনা বেগমকে দলের পক্ষ থেকে দাঁড় করানো হলেও তার বিরুদ্ধে পঞ্চায়েতের নানান দুর্নীতির প্রতিবাদে দলেরই একটি অংশ শামিমা খাতুনকে নির্দল প্রার্থী হিসাবে দাঁড় করেই দেয়। জানা গেছে নিহত রমজান মোল্লা শামিমা খাতুনের হয়ে প্রচারের কাজ করছিলেন। ফলে ভুমশোর গ্রামে দুটি গোষ্ঠীর দ্বন্দ্বের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে গ্রামবাসীরা দাবী করেছেন।
যদিও ভাতার বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক বনমালী হাজরা জানান, মৃত রমজান মোল্লা তাদের দলের কর্মী কি না তা জানা নেই। তবে যেকোনো মৃত্যুই দুঃখজনক।

এদিকে, শনিবার সকালে এই ঘটনায় পুলিশ ভাতার গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী সহ ৩জনকে গ্রেপ্তার করেছে। ধৃতদের নাম হুমায়ুন কবীর, খায়রুল আলম মণ্ডল এবং আবু তালেব মণ্ডল। এদের মধ্যে আবু তালেব মণ্ডল ভাতার গ্রাম পঞ্চায়েতের বিদায়ী তথা ভূমশোর গ্রামের বাসিন্দা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান রঙ্গিনী বিবির স্বামী। শনিবারই ধৃতদের আদালতে পেশ করে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে খায়রুল আলম মণ্ডল এবং আবু তালেব মণ্ডলকে ৭দিনের পুলিশী হেফাজতে নেবার আবেদন জানানো হলে বিচারক ৫দিনের পুলিশী হেফাজত মঞ্জুর করেন। হুমায়ুন কবীরকে জেল হেফাজতে পাঠিয়ে আগামী ৩ মে আদালতে পেশ করার নির্দেশ দেন।
পঞ্চায়েত নির্বাচনে বর্ধমান জেলায় প্রথম বলি, দুষ্কৃতিদের ছোঁড়া বোমায় নিহত তৃণমূলের সমর্থক
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top